প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার বাড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

শুক্রবার, ১৩ মার্চ ২০২০

কাগজ ডেস্ক : পরিবেশ রক্ষার তাগিদে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ কয়লা থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে। এর মধ্যে অন্যতম যুক্তরাষ্ট্র। কয়লার পরিবর্তে ক্লিন এনার্জি হিসেবে পরিচিত প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার রেকর্ড বাড়ছে দেশটিতে। এ ধারাবাহিকতায় ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রে জ্বালানি পণ্যটির ব্যবহার আগের বছরের তুলনায় ৩ শতাংশ বেড়েছে।

ইউএস এনার্জি ইনফরমেশন এডমিনিস্ট্রেশনের (ইআইএ) তথ্য অনুযায়ী, ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রে প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার বেড়ে দৈনিক গড়ে ৮ হাজার ৫০০ কোটি ঘনফুটে উন্নীত হয়েছে। প্রাকৃতিক গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা বৃদ্ধি এর পেছনে মূল প্রভাবক হিসেবে কাজ করেছে। এছাড়া সাশ্রয়ী হওয়ায় গৃহস্থ কাজে জ্বালানি পণ্যটির ব্যবহার বাড়িয়েছে দেশটির অধিবাসীরা।

ইআইএর তথ্য অনুযায়ী, গত বছর যুক্তরাষ্ট্রের বিদ্যুৎ উৎপাদন খাতে প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার দাঁড়িয়েছে দৈনিক গড়ে ২০০ কোটি ঘনফুট, আগের বছরের তুলনায় যা ৭ শতাংশ বেশি।

শীতকালে যুক্তরাষ্ট্রে সাধারণত প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার বাড়ে। কারণ গৃহস্থ ও বাণিজ্যিক খাতে এ সময় পণ্যটির ব্যবহার বেড়ে যায়। ঘর বা জায়গা গরম রাখতে প্রধান জ্বালানি এটি। তবে গত বছর শীত তুলনামূলক মৃদু হওয়ায় এ খাতে পণ্যটির চাহিদা স্থির থেকেছে। বরং তাপমাত্রা বৃদ্ধির কারণে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্রের ব্যবহার বাড়ায় গত গ্রীষ্মে দেশটিতে প্রাকৃতিক গ্যাসের চাহিদা চাঙ্গা ছিল।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj