কেডিএসের আয় বাড়বে ৪ কোটি টাকা

বুধবার, ৪ মার্চ ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : পরীক্ষামূলক উৎপাদনের পর স¤প্রসারিত প্রকল্পে বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু করায় পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কেডিএস এক্সেসরিজ লিমিটেডের আয় বছরে চার কোটি টাকা বাড়বে। প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মাধ্যমে গতকাল বিনিয়োগকারীদের এমন তথ্য দিয়েছে কোম্পানিটির কর্তৃপক্ষ। কেডিএসের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ডিএসই জানিয়েছে, গত ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে কেডিএস এক্সেসরিজের স¤প্রসারিত প্রকল্পের বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরু হয়েছে। এর ফলে কোম্পানিটির বার্ষিক উৎপাদন সক্ষমতা বেড়ে দাঁড়িয়েছে চার কোটি পিসে। এতে মাসে বিক্রি আয় বাড়বে ৩৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা। আর বছরে আয় বাড়বে ৪ কোটি টাকা। উৎপাদন বাড়ানোর জন্য গত বছরের ১৬ অক্টোবর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে স¤প্রসারিত প্রকল্পের ঘোষণা দেয় কেডিএস এক্সেসরিজ। তখন জানানো হয়, ৯১ হাজার ডলার ব্যয়ে ইলাস্টিক ও লেভেল ইউনিটের সক্ষমতা বাড়াতে নতুন ক্রোশে ও ফ্লেক্সো প্রিন্টিং মেশিন কেনা হবে। উল্লেখ্য, ২০১৫ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া কেডিএস এক্সেসরিজ প্রতি বছরই শেয়ারহোল্ডারদের নগদ ও বোনাস শেয়ার মিলিয়ে ১৫ শতাংশ করে লভ্যাংশ দিয়েছে।

সর্বশেষ ২০১৯ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ দিয়েছে। এ হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ২০ পয়সা। তার আগের বছর ২০১৮ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটি শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ বোনাস শেয়ার লভ্যাংশ হিসেবে দেয়। ওই হিসাব বছরে কোম্পানিটির ইপিএস হয় ২ টাকা ২১ পয়সা। এদিকে চলতি হিসাব বছরের প্রথমার্ধে (২০১৯ সালের জুলাই-ডিসেম্বর) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ২৫ পয়সা, যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৫ পয়সা।

৬৬ কোটি ২১ লাখ ৫০ হাজার টাকা পরিশোধিত মূলধনের এ কোম্পানিটির মোট শেয়ারের ৭৬ দশমিক ১৫ শতাংশ উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের হাতে। বাকি শেয়ারের মধ্যে ৫ দশমিক ৮২ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী এবং ১৮ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে রয়েছে।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj