সাত কার্যদিবস পর সূচক বেড়েছে

মঙ্গলবার, ৩ মার্চ ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : টানা সাত কার্যদিবস দরপতনের পর গতকাল সোমবার প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) মূল্যসূচক কিছুটা বেড়েছে। সূচক বাড়লেও ডিএসইতে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

আগের সাত কার্যদিবসের মতো এদিনও লেনদেনের শুরুতেই সূচকে নেতিবাচক প্রবণতা দেখা যায়। এতে প্রথম ১৫ মিনিটের লেনদেনে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ২২ পয়েন্ট কমে যায়। এরপর কিছুটা ঊর্ধ্বমুখী হয়ে আবার পতনের দিকে এগোতে থাকে সূচক।

তবে বেলা সাড়ে ১১টার পর থেকে পরিস্থিতি বদলাতে থাকে। শেষ তিন ঘণ্টার লেনদেনে বাড়তে থাকে একের পর এক প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম। এতে সূচকেও ইতিবাচক প্রভাব পড়ে। ফলে ১২টা থেকে লেনদেনের শেষ পর্যন্ত আর একবারের জন্যও ঋণাত্মক হয়নি সূচক। তবে শেষ আধাঘণ্টার লেনদেনে কিছু প্রতিষ্ঠানের দরপতন হওয়ার কারণে সূচকের বড় উত্থান হয়নি। এদিন লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ২৪ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৪৩৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। এর আগে টানা সাত কার্যদিবসের পতনে সূচকটি কমে ৩৪৮ পয়েন্ট। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ সূচক ৫ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৪৭৯ পয়েন্টে এবং ডিএসইর শরিয়াহ ১ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৩০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

মূল্যসূচকের এই ঘুরে দাঁড়ানোর দিনে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। দিনভর বাজারটিতে লেনদেনে অংশ নেয়া ২২৯টির প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৭৫টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৫১টির দাম।

এদিকে ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণ কিছুটা কমেছে। দিনভর বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ৪১৯ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। আগের দিন লেনদেন হয় ৪৫৬ কোটি ১৭ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ৩৬ কোটি ৪৩ লাখ টাকা। লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানির মধ্যে রয়েছে- ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যাল, ওরিয়ন ইনফিউশন, সেন্ট্রাল ফার্মাসিউটিক্যাল, সিলভা ফার্মাসিউটিক্যাল, খুলনা পাওয়ার, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যাল এবং ওরিয়ন ফার্মা।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক মূল্যসূচক সিএএসপিআই ৬৪ পয়েন্ট বেড়ে ১৩ হাজার ৫৮৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৯৫ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেয়া ২৩৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৩৭টির দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৭৬টির এবং ২২টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

ব্লুক মার্কেটে লেনদেন ৬ কোটি টাকার: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল সোমবার ব্লুক মার্কেটে মোট ৯ কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মোট ২০ লাখ ১৯ হাজার ৩৭টি শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার আর্থিক মূল্য ৬ কোটি ২৪ লাখ টাকা। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ৫ কোটি ২৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে সামিট পাওয়ার লিমিটেডের। রিং শাইন টেক্সটাইল ২৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন করে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। তৃতীয় স্থানে থাকা প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল ২০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

এছাড়া ব্লুকে লেনদেন করা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে- সেন্ট্রাল ফার্মা, কনফিডেন্স সিমেন্ট, গøাক্সোস্মিথক্লাইন, ন্যাশনাল পলিমার, অলিম্পিক অ্যাক্সেসরিজ ও স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj