রান খরায় মাহমুদউল্লাহ

মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেটে সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছে না তারকা ব্যাটসম্যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। বিগত প্রায় এক বছর যাবৎ টেস্টে সেভাবে পারফর্ম করতে পারছেন না অভিজ্ঞ এ অলরাউন্ডার। শেষ ১০টি ইনিংসের মধ্যে মাত্র একটি ফিফটি দেখা পেয়েছেন টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ জাতীয় দলকে নেতৃত্ব দেয়া মাহমুদউল্লাহ।

টাইগারদের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো দায়িত্ব নেয়ার পর মাহমুদউল্লাহ খেলেছেন চারটি টেস্ট। সবখানেই ব্যর্থ রিয়াদ। এমন অবস্থায় কোচই মনে করছেন টেস্ট ক্রিকেট নিয়ে মাহমুদউল্লাহর নতুন করে ভাবা উচিত। তবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাদ পড়াকে টেস্ট ক্রিকেটে মাহমুদউল্লাহর ইতি দেখছেন না দক্ষিণ আফ্রিকান এই কোচ।

এক সংবাদ সম্মেলনে ডমিঙ্গো বলেন, ‘না, মোটেও না। এ মুহূর্তে সে দলের বাইরে। তবে সত্যি বলতে আমি তাকে লাল বলের ক্রিকেট- ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তা করতে বলেছি। সে আমাদের দলের সাদা বলের ক্রিকেটে অবিচ্ছেদ্য অংশ। রিয়াদের কথা যেটা বলব, সে লড়তে জানে। আমি নিশ্চিত সে টেস্ট দলে তার জায়গা পেতে কঠিন লড়াই করবে। ৪৯ টেস্ট খেলে বাংলাদেশের জন্য দারুণ পারফর্ম করেছে সে। এরকম দৃঢ়চেতা মানসিকতা ওর দলে জায়গা ফিরে পাওয়ার জেদ আমাদের জন্য ভালো।’ টেস্ট দলে ফিরতে হলে পারফরমেন্সের মাধ্যমেই মাহমুদউল্লাহকে ফিরতে হবে, কথাটা মনে করিয়ে দেন ডমিঙ্গো, ‘আমি তার সঙ্গে কথা বলেছি কারণ এ মুহূর্তে সাদা বলের ক্রিকেটে ও (মাহমুদউল্লাহ) আমাদের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়। টেস্ট দলে জায়গা পেতে হলে তাকে আবার সেভাবেই পারফর্ম করে ফিরতে হবে। আমি কেউ নই যে কোনো খেলোয়াড়কে বলব, তোমার খেলা বন্ধ করা উচিত। বিশেষ করে দীর্ঘ সময় ধরে যারা খেলছে এবং পারফর্ম করছে এমন কাউকে তো বলাই যাবে না। তার সিদ্ধান্ত নেয়ার অধিকার আছে কখন সে দেশের হয়ে খেলা শেষ করবে। আমি নিশ্চিতভাবেই তাকে সেই সুযোগটি দেব।’

২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টে অভিষিক্ত মাহমুদউল্লাহর সর্বশেষ চার টেস্টে ৮ ইনিংসে তার সর্বোচ্চ রান অপরাজিত ৩৯, কলকাতায় ভারতের বিপক্ষে। রাওয়ালপিন্ডিতে নাসিম শাহর হ্যাটট্রিক বলের সামনে যেভাবে ¯িøপে ক্যাচ দিয়েছেন, তা রীতিমতো দৃষ্টিকটু ছিল। ওই আউটের পর মাহমুদউল্লাহর টেস্ট খেলা নিয়ে সমালোচনা ওঠে। সেই সমালোচনার মুখে নির্বাচকরা জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৬ জনের দলে রাখেনি অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারকে।

::য় আ ত ম মাসুদুল বারী

গ্যালারি'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj