আইপিও অনুমোদন পেল এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স

বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সের প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) অনুমোদন করেছে পুঁজিবাজারের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। গত মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত বিএসইসির কমিশন সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়। বিএসইসি জানিয়েছে, এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স আইপিওতে ২ কোটি ৬০ লাখ ৭৯ হাজার সাধারণ শেয়ার ছাড়বে। প্রতিটি শেয়ারের অভিহিত মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা। আইপিও’র মাধ্যমে কোম্পানিটি পুঁজিবাজার থেকে ২৬ কোটি ৭ লাখ ৯০ হাজার টাকা পুঁজি উত্তোলন করবে।

পুঁজিবাজার থেকে উত্তোলন করা টাকা এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স ট্রেজারি বন্ড ও অন্যান্য ক্ষেত্রে বিনিয়োগ এবং প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের খরচ খাতে ব্যয় করবে। কোম্পানিটিকে পুঁজিবাজারে আনতে ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এএএ ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, আইআইডিএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড এবং বিএলআই ক্যাপিটাল লিমিটেড। বিএসইসি জানিয়েছে, ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত বছরের আর্থিক বিবরণী অনুযায়ী, পুনর্মূল্যায়ন সঞ্চিতিসহ কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৭২ পয়সা। আর বিগত ৫টি বছরের কর পরবর্তী নীট মুনাফার ভারিত গড় হারে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ৪২ পয়সা।

বিএসইসি আরও জানিয়েছে, এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্সকে পাবলিক ইন্স্যু বিধিমালা ২০১৫ এর বিধি ৩(৩)(সি) পরিপালনের বাধ্যবাধকতা থেকে অব্যাহতি দেয়অ হয়েছে। সেই সঙ্গে আইপিও’র মাধ্যমে উত্তোলন করা মূলধনের ন্যূনতম ২০ শতাংশ অর্থ ‘নন-লাইফ বিমাকারীর সম্পদ বিনিয়োগ ও সংরক্ষণ প্রবিধানমালা ২০১৯’-এর বিধান পরিপালন সাপেক্ষে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করার শর্ত আরোপ করা হয়েছে। এছাড়া কোম্পানিটির সাধারণ শেয়ার ক্রয়ের জন্য ইলেকট্রনিক সাবস্ক্রিপশন সিস্টেমে অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক যোগ্য বিনিয়োগকারীদের, ইলেকট্রনিক সাবস্ক্রিপশন সিস্টেম শুরুর পাঁচ কার্যদিবস আগে তালিকাভুক্ত সিকিউরিটিজে বাজারমূল্যে কমপক্ষে ১ কোটি টাকা বিনিয়োগ থাকতে হবে বলেও শর্তজুড়ে দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj