ইস্পাত উৎপাদনে রেকর্ড চীনের

রবিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : বৈশ্বিক ইস্পাত উৎপাদন খাতে চীনের একক আধিপত্য বজায় রয়েছে। বিশ্বজুড়ে উৎপাদিত ইস্পাতের অর্ধেকের বেশি উৎপাদন করে দেশটি। গত বছর এ হিস্যা আরো বেড়েছে। একই সঙ্গে ভারত, যুক্তরাষ্ট্র ও ইরান শিল্প ধাতুটির উৎপাদন বাড়িয়েছে। ওয়ার্ল্ড স্টিল এসোসিয়েশনের (ডব্লিউএসএ) বার্ষিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৯ সালে বিশ্বজুড়ে ১৮৬ কোটি ৯৯ লাখ টন অপরিশোধিত ইস্পাত উৎপাদন হয়েছে, যা আগের বছরের তুলনায় ৩ দশমিক ৪ শতাংশ বেশি। ২০১৮ সালে বিশ্বজুড়ে ১৮০ কোটি ৮৪ লাখ টন ইস্পাত উৎপাদন হয়েছিল। সেই হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে শিল্প ধাতুটির বৈশ্বিক উৎপাদন বেড়েছে ৬ কোটি ১৫ লাখ টন।

গত বছর বিশ্বের শীর্ষ ইস্পাত উৎপাদনকারী দেশ চীনে পণ্যটির উৎপাদন দাঁড়িয়েছে ৯৯ কোটি ৬৩ লাখ টনে। এক বছরের ব্যবধানে দেশটিতে শিল্প ধাতুটির উৎপাদন বেড়েছে ৮ দশমিক ৩ শতাংশ। ২০১৮ সালে দেশটি ৯২ কোটি টন ইস্পাত উৎপাদন করেছিল। বৈশ্বিক ইস্পাত উৎপাদনে গত বছর চীনের হিস্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৩ দশমিক ৩ শতাংশে। এর আগের বছর তা ছিল ৫০ দশমিক ৯ শতাংশ। গত বছর ভারতে ১১ কোটি ১২ লাখ টন ইস্পাত উৎপাদন হয়েছে, যা আগের বছরের তুলনায় ১ দশমিক ৮ শতাংশ বেশি।

একই সময় জাপানে শিল্প ধাতুটির উৎপাদন আগের বছরের তুলনায় ৪ দশমিক ৮ শতাংশ কমে ৯ কোটি ৯৩ লাখ টনে নেমে এসেছে। যুক্তরাষ্ট্রে গত বছর শিল্প ধাতুটির উৎপাদনের পরিমাণ ছিল ৮ কোটি ৭৯ লাখ টন, যা আগের বছরের তুলনায় ১ দশমিক ৫ শতাংশ বেশি। অন্যদিকে ইরানে গত বছর ৩ কোটি ১৯ লাখ টন ইস্পাত উৎপাদন হয়েছে, যা আগের বছরের তুলনায় ৩০ শতাংশ বেশি। এর বাইরে শীর্ষ উৎপাদনকারীদের মধ্যে রাশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, জার্মানি, তুরস্ক ও ব্রাজিলে ইস্পাত উৎপাদন কমে এসেছে।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj