প্যারিসে বাংলাদেশি পোশাক ও চামড়াজাত পণ্যের প্রদর্শনী

শুক্রবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

কাগজ ডেস্ক : ফ্রান্সের প্যারিসে টেক্সওয়ার্ল্ড/অ্যাপারেল সোর্সিং/লেদার ওয়ার্ল্ড প্যারিস নামে পোশাক ও চামড়াজাত পণ্যের চার দিনব্যাপী প্রদর্শনী চলছে। মেসে ফ্রাংকফুর্টের আয়োজনে এ প্রদর্শনী শুরু হয় গত ১০ ফেব্রুয়ারি। এ প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ থেকে ২২ জন অ্যাপারেল, ফ্যাব্রিক ও চামড়া প্রস্তুতকারক অংশগ্রহণ করেছেন। বাংলাদেশি এসব স্টলে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, তুরস্ক, জার্মানি, ফ্রান্স এবং অন্য ইউরোপীয় ও মধ্য এশীয় দেশের ক্রেতাদের লক্ষণীয় ভিড় রয়েছে। এ প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ থেকে সরাসরি যেমন অংশ নিয়েছে, তেমনি রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর অধীনে জাতীয় প্যাভিলিয়নেও অংশ নিচ্ছে অনেক প্রতিষ্ঠান।

প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ ছাড়াও অংশগ্রহণ করেছে চীন, কম্বোডিয়া, কোরিয়া, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, শ্রীলঙ্কা, তাইওয়ান, থাইল্যান্ড, তুরস্ক, পাকিস্তানসহ সবচেয়ে বড় প্রস্তুতকারক দেশগুলো। ইউরোপের সব দর্শক ও ক্রেতার আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছে এ প্রদর্শনী। এসব পণ্যের ক্রেতারা আসছেন যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, তুরস্ক, স্পেন, ইতালি ও জার্মানি থেকে।

প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণের পাশাপাশি বাংলাদেশ দুটি ফ্যাশন শোতেও অংশগ্রহণ করে। প্রদর্শনীতে অংশ নেয়া ফ্যাব্রিক প্রতিষ্ঠান হলো হুরাইন এইচটিএফ, মমটেক্স এক্সপো, যাবের এন্ড যুবায়ের ফ্যাব্রিকস; ডেনিম-অ্যারন ডেনিম, আর্গন ডেনিম, চিটাগং ডেনিম মিলস, এভিন্স টেক্সটাইল ও এনজেড ডেনিম; অ্যাপারেল-এশিয়া লিংক ডিজাইন, এনট্রাস্ট ফ্যাশন, ইউরো নিটওয়্যার, এক্সপো অ্যাপারেলস, জেরার্ড ফ্রেস, আইরিন নিটওয়্যার, প্যাসিফিক এক্সপোর্ট এন্ড ইউরো ফ্যাশন মার্ট, আরপি ফ্যাশন, টিম ম্যানুফ্যাকচারিং এবং টেক্সপিওন।

প্যারিসের এ প্রদর্শনীতে অংশ নেয়া আইরিন নিটওয়্যারের এমএ মজিদ তালুকদার বলেন, আমাদের বেশির ভাগ নিয়মিত ক্রেতাই ইউরোপের। তাই টেক্সওয়ার্ল্ডে যোগ দিয়েছি। এখানে ইউরোপের প্রচুর ক্রেতা আসেন। আমরা এই প্রথম কোনো প্রদর্শনীতে অংশ নিচ্ছি। আশা করছি, আমরা বেশ ভালো সাড়া পাব।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj