আইসিসিবিতে শুরু তিনদিনের ভারতীয় প্রকৌশল প্রদর্শনী

বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : প্রবৃদ্ধির জন্য অংশীদার ¯েøাগানে রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি, বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) শুরু হয়েছে তিনদিনের ভারতীয় প্রকৌশল প্রদর্শনী (ইন্ডি-২০২০ বাংলাদেশ)। গতকাল বুধবার আইসিসিবির গুলনকশা হলে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন। এ সময় শিল্পমন্ত্রী বলেন, ভারতীয় বিনিয়োগ বাংলাদেশ থেকে ভারতে বহমুখী পণ্য রপ্তানিতে সহায়তা করবে। এতে দুদেশের বাণিজ্য ঘাটতিও কমে যাবে। ভবিষ্যতে উভয় দেশের সম্পর্ক আরো শক্তিশালী হবে। বিনিয়োগের সবগুলো নির্দেশক ইতিবাচক হওয়ায় বিশ্বের কাছে বাংলাদেশ এখন আকর্ষণীয় নাম। শিল্পমন্ত্রী বলেন, আমাদের সরকার হাইটেক শিল্পস্থাপনে সব ধরনের সহায়তা দিচ্ছে। আমার বিশ্বাস ইন্ডি-২০২০ বাংলাদেশ দুদেশের বাণিজ্য সম্পর্ক উন্নয়নের পাশাপাশি লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং খাতের প্রযুক্তি বিনিময়ে যৌথ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে।

অনুষ্ঠানে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার রীভা গাঙ্গুলি দাশ বলেন, বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ও ভারত যৌথভাবে বৈশ্বিক সাপ্লাই চেইন গঠন ও ইন্টিগেশনে কাজ করবে। দেশের শীর্ষ রপ্তানি পণ্য তৈরি পোশাক খাতে মেশিনারিজ সরবরাহের সুযোগ রয়েছে ভারতের। তিনি বলেন, চলতি বছরের ১৭ মার্চ শুরু হচ্ছে মুজিববর্ষ উদযাপনের অনুষ্ঠানমালা। বাংলাদেশের ধর্মনিরপেক্ষ বন্ধু হিসেবে ভারত সবসময় পাশে রয়েছে।

বাংলাদেশে লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং শিল্পের অপার সম্ভাবনার কথা রয়েছে উল্লেখ করে রীভা গাঙ্গুলি বলেন, সম্ভাবনাময় এই শিল্পের এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে ও উভয় দেশের প্রকৌশল যন্ত্রপাতি এবং মেশিনারিজ প্রস্তুত ও সরবরাহকারীদের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপনের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে ভূমিকা রাখবে। ভারতের হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশ থেকে ২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপ ইয়ার্ড নির্মিত দুটি জাহাজ নেবে ভারতের জেন্দাস ইন্ডিয়া। এছাড়া দুদেশের সীমান্তের বিভিন্ন জায়গায় স্থাপিত সীমান্ত হাটও ব্যাপক জনপ্রিয়। এসব উদ্যোগ দুদেশের মানুষের মধ্যে সম্পর্ক আরো দৃঢ় করবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ২০১৯ সালে বাংলাদেশ-ভারতের দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ছিল ১০ বিলিয়ন ডলারের বেশি। বাংলাদেশ থেকে ভারতে রপ্তানি হয়েছে এক বিলিয়ন মার্কিন ডলার। অনুষ্ঠানে ভারতের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ উন্নয়ন সংস্থার (ইইপিসি) চেয়ারম্যান রহী সেহগাল, ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইর সহসভাপতি মুনতাকিম আশরাফ, ইইপিসি ইন্ডিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান মহেশ কে দাশ ও নির্বাহী পরিচালক সুরঞ্জন গুপ্তা প্রমুখ বক্তব্য দেন।

ভারতের বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় দেশটির বাণিজ্য ও বিনিয়োগ উন্নয়ন সংস্থা (ইইপিসি) এই প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে। এতে ভারতের ১২০টির বেশি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। এতে সহায়তা করছে বাংলাদেশের এফবিসিসিআই, আইবিসিসিআই, বিআইওএ এবং বিইএমএমএ। ২২ থেকে ২৪ জানুয়ারি আইসিসিবির গুলনকশা ও পুষ্পগুচ্ছ হলে প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকছে এই প্রদর্শনী।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj