রপ্তানিতে নগদ সহায়তা পাবে বস্ত্র খাত

বৃহস্পতিবার, ৯ জানুয়ারি ২০২০

কাগজ প্রতিবেদক : তৈরি পোশাকের পর এবার বস্ত্র (টেরিটাওয়েল ও স্পেশালাইজড টেক্সটাইল) রপ্তানিতে বিশেষ নগদ সহায়তা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এখন থেকে বস্ত্র রপ্তানির বিপরীতে রপ্তানিকারকদের এক শতাংশ বিশেষ নগদ সহায়তা দেয়া হবে। সম্প্রতি (৭ জানুয়ারি) বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করেছে।

এতে বলা হয়েছে, ২০১৯-২০ অর্থবছর থেকে জাহাজি পণ্যের ক্ষেত্রে এ সুবিধা পাবে। এক্ষেত্রে বিধিবহির্ভূতভাবে বিশেষ নগদ সহায়তা পরিশোধ করা হলে সংশ্লিষ্ট ব্যাংক থেকে সে অর্থ কেটে নেবে বাংলাদেশ ব্যাংক। এছাড়া মিথ্যা তথ্য দিয়ে বা অনিয়ম করে সুবিধা দেয়া-নেয়া করলে সংশ্লিষ্টদের শাস্তির আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এর আগে শুধু তৈরি পোশাক খাতের উদ্যোক্তারা এই সুবিধা পেতেন। এই সুবিধা পেতে তৈরি পোশাক খাতে স্থানীয় মূল্য সংযোজনের হার (ভ্যাট) ন্যূনতম ৩০ শতাংশ হওয়া বাধ্যতামূলক। তবে বস্ত্রজাত সামগ্রী রপ্তানির বিপরীতে সুবিধা পেতে এই নিয়ম মানতে হবে না।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, নিজস্ব কারখানায় উৎপাদিত পণ্য রপ্তানির ক্ষেত্রে নিট এফওবি (ফ্রি অন বোর্ড) মূল্যের ওপর এক শতাংশ হারে উৎপাদনকারী-রপ্তানিকারকরা বিশেষ নগদ সহায়তা পাবেন।

বৈদেশিক মুদ্রায় লেনদেনে অনুমোদিত সব ডিলার ব্যাংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে পাঠানো সার্কুলারে আরো বলা হয়েছে, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন, আমেরিকা ও কানাডায় রপ্তানির ক্ষেত্রে বিশেষায়িত অঞ্চলে (ইপিজেড, ইজেড) অবস্থিত টাইপ-সি (দেশীয় মালিকানাধীন) প্রতিষ্ঠানের জন্যও এ সুবিধা প্রযোজ্য হবে। এ সুবিধা এবং ডিউটি ড্র-ব্যাক-বন্ড সুবিধা যৌথভাবে গ্রহণ না করার শর্ত প্রযোজ্য হবে না।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj