নিউজিল্যান্ডের বাতাসে পোড়া গন্ধ

শনিবার, ৪ জানুয়ারি ২০২০

কাগজ ডেস্ক : নিউজিল্যান্ডের আকাশ ধোঁয়াশায় ক্রমেই হয়ে উঠছে হলুদাভ। বাতাস ভরে উঠছে পোড়া গন্ধে। অস্ট্রেলিয়ার দাবানলের ধোঁয়া পৌঁছে গেছে ২ হাজার কিলোমিটার (১ হাজার ২০০ মাইল) দূরের এ দেশেও। অস্ট্রেলিয়া রেকর্ড ভাঙা তাপমাত্রা আর কয়েক মাসের খরায় ভয়াবহ আকার ধারণ করা দাবানল মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে। অস্ট্রেলিয়াজুড়ে বিভিন্ন জায়গায় দাউ দাউ করে জ্বলতে থাকা আগুন থেকে বিশালাকার ধোঁয়ার কুণ্ডলী বাতাসে ভেসে পৌঁছে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ডে।

বিবিসি জানায়, দাবানলের ধোঁয়া প্রথম ৩১ ডিসেম্বরে পৌঁছয় নিউজিল্যান্ডের সাউথ আইল্যান্ডে। ধোঁয়াশায় সেখানকার নীল আকাশ ধারণ করে হলুদবর্ণ। এতে সেখানকার বিখ্যাত হিমবাহও ধোঁয়ায় ঢাকা পড়ে উধাও হয়েছে। সাউথ আইল্যান্ডের পর এবার নর্থ আইল্যান্ডের আকাশও ধোঁয়ার কারণে অদ্ভুতুড়ে রূপ ধারণ করেছে। নিউজিল্যান্ডে হিমবাহ দেখতে পর্যটকরা কয়েকটি স্থানে ভিড় করে। কিন্তু গত কয়েকদিন ধরে ওই জায়গাগুলোতে সাদা তুষার এবং নীল আকাশের পরিবর্তে ঘন হলুদাভ ধোঁয়াশাই তাদের নজরে এসেছে।

নিউ সাউথ ওয়েলসে জরুরি অবস্থা ঘোষণা : অস্ট্রেলিয়ায় দাবানলের ভয়াবহতা বাড়তে থাকায় নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যে সাতদিনের জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল থেকে এ জরুরি অবস্থা শুরু হয় এবং ৭ দিন পর্যন্ত বহাল থাকবে। ‘এ সময়ে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ মানুষজনকে উপদ্রুত এলাকা থেকে সরিয়ে নেয়াসহ রাস্তা বন্ধ করে দেয়া এবং এলাকার অধিবাসী ও সম্পদ রক্ষার জন্য আরো যা কিছু করা প্রয়োজন তা করবে’ বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন নিউ সাউথ ওয়েলসের প্রধানমন্ত্রী গø্যাডিস বেরেজিক্লিয়ান। এ সপ্তাহজুড়েও উচ্চ তাপমাত্রা এবং জোর বাতাসের পূর্বাভাস পাওয়া গেছে। সামনের দিনগুলোতে পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হতে পারে বলে ধারণা করছে কর্তৃপক্ষ।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj