কবিতার গর্ভপাতকলা

শুক্রবার, ৩ জানুয়ারি ২০২০

মাহবুব মিত্র

দমদম হাওয়াটোস্ট; হাসতে-হাসতে ভাসতে-ভাসতে আমি এখন থোকা-থোকা বোকা-সোকা ভ্রæণফুল। কবিকুল মহাসঙ্কুল-মহাশয়ের মহাশঙ্খ বাজে মহারণ্যে। নাগপাশ ঘিরে নাগপুরের নাগপুষ্প ওড়ায় নগরনাগর। কী এক হট্টগোল রটে-রটে রুটে-রুটে ছুটে-ছুটে ফোটায় কবিতাশ্রম!

বিভ্রমাশ্রমে ওরা কারা যারা তারা বানায় নদীর বাঁকে ফাঁকে-ফাঁকে। একদিন সাঁকো-সাঁকো সাঁতারখেলা হবে আঁকুপাঁকু; সাঁতারু এঁকেবেঁকে এঁকে যাবে বাঁকো-সাঁকো কৌণিক ঢেউ। কবিতাকাশে খসে-খসে ঝরে পড়বে খসখসে আঁধার! এবার থামাও সেতারের ভুলভাল মুদ্রানাচ।

মশারির ঝালরে স্ফীত হয় মুদ্রানীতি। চায়ের লোহিতকণিকায় হ্রাস পাচ্ছে শ্বেতকণিকার রাশভারি চোখ। দলছুট বানর হয়ে শব্দ-বাক্য-যতিচিহ্নের যত্রতত্র পড়ে আছে অতিশয় নীচু বামন। বামনের ছলছল ছলাকলায় বিস্মৃত বাকল-বকনা যেন কবিতাগতর।

সাময়িকী'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj