স্বাধীনতার বীজ : আনোয়ার আল ফারুক

শনিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯

বীজ বুনেছি সাতচল্লিশে, স্বাধীনতার বীজ

কোনোকালে কারোর কাছে দেইনি ভূমি লিজ,

স্বাধীনতা রক্তে কেনা

দাম শুধেছে বীরের সেনা;

এই সবুজটা আর কারো নয় আমাদেরই নিজ।

পাকবাহিনী কাড়তে যে চায় মায়ের মুখের বোল

বায়ান্নতেই বাজিয়ে দিলাম বাংলাভাষার ঢোল,

ভেস্তে গেল নোংরামো ছল

কাজ দেয়নি বন্দুকের নল;

পাকবাহিনী খেলো শেষে কাদা-পানির ঘোল।

রক্তদামে একাত্তরে কিনে সবুজ ভুঁই

দিবানিশি লাল ও সবুজ মন-মননে ছুঁই,

সবুজ ছড়ায় জ্যোতির হাসি

তাইতো এ দেশ ভালোবাসি;

এই যেন এক নববধূর খোঁপায় পরা জুঁই।

ফের যদি কেউ এই সবুজে চায় রে দিতে হাত

উপড়ে দেবো সেই শকুনের বিষের যত দাঁত,

মটকে দেবো শকুনির ঘাড়

পাবে না সে একটুও ছাড়;

জেনে রেখো শকুনেরা আমরা বীরের জাত।

উপচে পড়ুক এই সবুজে সুখ পরশের বান

থাকুক বেঁচে চিরকালই লাল-সবুজের গান,

সবুজ আমার আশার আলো

এই সবুজটা থাকুক ভালো;

জীবন দিয়ে রাখবো ধরে লাল-সবুজের মান।

পাঠক ফোরাম'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj