প্রধান নির্বাহী বরখাস্ত

রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯

কাগজ ডেস্ক : দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটের (সিএসএ) বিতর্কিত প্রধান নির্বাহী থাবাং মোরেকে বরখাস্ত করার ঘোষণা দিয়েছে বোর্ড। অসদাচরণের কারণে তাকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে বলে এক চিঠির মাধ্যমে জানিয়েছে সিএসএ। এর আগে চলতি সপ্তাহের শুরুতে সিএসএর বোর্ড চেয়ারপারসন ইকবাল খান এবং স্বাধীন পরিচালক শার্লি জিন পদত্যাগ করেন। মোরের বিরুদ্ধে অভিযোগের তীর ছুড়েছিলেন শার্লি জিন। পরে অবশ্য মোরেকে ক্ষমা করা হয়েছিল। কিন্তু এবার আর শেষ রক্ষা হলো না। তার স্থলে নতুন কাউকে নিয়োগের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন সিএসএ প্রেসিডেন্ট। ঘটনার সূত্রপাত খেলোয়াড়, মিডিয়া রিলেশন, আর্থিক এবং ম্যানেজমেন্ট-সংক্রান্ত বিষয়াদি নিয়ে। গত রবিবার এমজানজি সুপার লিগ চলাকালে ৫ জন সাংবাদিকের অ্যাক্রিডেশন প্রত্যাহার করার পর ঝামেলা গুরুতর রূপ নেয়।

প্রথমে এর কারণ জানানো না হলেও পরে সোমবার সকালে বোর্ডের প্রধান নির্বাহী মোরে বলেন, সিএসএকে নিয়ে এই সাংবাদিকরা যা সংবাদ প্রচার করেছেন, তাতেই অখুশি বোর্ড।

এই বক্তব্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায় দক্ষিণ আফ্রিকার জাতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর সম্পাদকীয় ফোরাম। দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট ও ওয়ানডে দলের মূল স্পন্সর স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক জানায়, আগামী বছরের ৩০ এপ্রিল মেয়াদ শেষ হওয়ার পর আর চুক্তি নবায়ন করবে না। ফলে সিএসএ প্রায় ২৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতিতে পড়বে।

এখানেই শেষ নয়, সাউথ আফ্রিকান ক্রিকেটার্স এসোসিয়েশনের (এসএসিএ) সঙ্গেও আইনি লড়াই চলছে সিএসএর। এর ফলেও প্রায় ৪৪.৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার হারাতে পারে সিএসএ। এর আগে বোর্ডের ৬ জন স্টাফকেও বরখাস্ত করা হয়। শুধু কি তাই, সিএসএর বিরুদ্ধে ক্রেডিট কার্ড জালিয়াতির অভিযোগও তোলা হয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটে সমস্যা চলছে অনেক দিন ধরেই। বিশ^কাপে ভরাডুবির পরে ভারত সফরেও একই অবস্থা প্রোটিয়াদের। মাঠে ক্রিকেটে টানা হারের মধ্যে ঘুরতে থাকা দেশটির ক্রিকেট বোর্ডেও অস্থিরতা শুরু হলো।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj