স্বর্ণবিহীন তিন দিন : একদিনে সাত রৌপ্য জয়

শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : বাংলাদেশ ১৩তম এসএ গেমসের সোমবার দ্বিতীয় দিন শুরুটা করেছিল স্বর্ণপদক জয়ের মধ্য দিয়ে। বাংলাদেশকে সেই স্বর্ণপদকটি এনে দেন তায়কোয়ান্দো খেলোয়াড় দিপু চাকমা। এরপর গত মঙ্গলবার তৃতীয় দিন একদিনেই ৩টি স্বর্ণ জয় করে বাংলাদেশ। বাংলাদেশকে স্বর্ণ ৩টি এনে দেন তিন কারাতে খেলোয়াড় মারজান আক্তার প্রিয়া, হোমায়রা আক্তার অন্তরা ও আল আমিন। দুই দিনে ৪টি স্বর্ণ জয়ের ফলে মনে হচ্ছিল ২০১৬ সালের এসএ গেমসের স্বর্ণ জয়ের রেকর্ড ভেঙে ফেলবে বাংলাদেশ। ২০১৬ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত হওয়া এসএ গেমসের ১২তম আসরে ৪টি স্বর্ণপদক জিতেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু একদিনে ৩ স্বর্ণ জয়ের পর গত বুধবার চতুর্থ দিন, গত বৃহস্পতিবার পঞ্চম দিন ও গতকাল শুক্রবার ষষ্ঠ দিন টানা তিন দিন স্বর্ণবিহীন কাটিয়েছে বাংলাদেশ। তবে বৃহস্পতিবার পঞ্চম দিন ৫টি রৌপ্যপদক নিজেদের ঝুলিতে পুরতে পেরেছিল বাংলাদেশ।

গতকাল ষষ্ঠ দিন বাংলাদেশ জয় করেছে ৭টি রৌপ্যপদক। এর মধ্যে ৪টি এসেছে গলফ খেলায়। ব্যক্তিগত ইভেন্টে রৌপ্য জেতেন মোহাম্মদ ফরহাদ। এ ছাড়া আরেকটি এসেছে গলফে পুরুষের দলগত ইভেন্টে। আর মেয়েদের ব্যক্তিগত ইভেন্টে রৌপ্য জেতেন জাকিয়া সুলতানা। গলফে মেয়েদের দলীয় ইভেন্ট থেকেও আসে রৌপ্যপদক। এ ছাড়া ১০ মিটার নারী এককে রৌপ্য জিতেছেন আরদিনা ফেরদৌস। ভারত্তোলনে মেয়েদের ৭১ কেজি ওজনে রোকেয়া সুলতানা, ছেলেদের ৮৯ কেজি ওজনে সাখাওয়াত হোসেন রৌপ্যপদক জেতেন।

ষষ্ঠ দিন শেষে পদক তালিকার শীর্ষে রয়েছে ভারত। এসএ গেমসে বরাবরই শীর্ষে থাকে ভারত। এবারো এখন পর্যন্ত সেই ধারা অব্যাহত রেখেছে। এ পর্যন্ত ৮১টি স্বর্ণপদক, ৫৯টি রৌপ্যপদক ও ২৫টি ব্রোঞ্জপদক জিতেছে তারা। ফলে বলা যায়, এবারো পদক তালিকার শীর্ষস্থানে থেকেই আসর শেষ করবে ভারত। তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে স্বাগতিক নেপাল। গতকাল পর্যন্ত তারা ৪১টি স্বর্ণ, ২৭টি রৌপ্যপদক ও ৪৮টি ব্রোঞ্জ জিতেছে। নেপাল যেভাবে এগুচ্ছে তাতে করে এসএ গেমসে প্রথমবারের মতো স্বর্ণ জয়ের হাফসেঞ্চুরি করতে পারে তারা। গেমসের পঞ্চম দিনই তারা তাদের আগের ৩১টি স্বর্ণ জয়ের রেকর্ডটি ভেঙে ফেলে। ১৯৯৯ সালে যখন প্রথমবারের মতো তারা এসএ গেমস আয়োজন করে তখন ৩১টি স্বর্ণপদক জিতেছিল। এখন সেই রেকর্ডকে আরো দূরে নিয়ে যাচ্ছে। তালিকার তৃতীয় স্থানে রয়েছে শ্রীলঙ্কা।

তারা এখন পর্যন্ত ২৩টি স্বর্ণ, ৪২টি রৌপ্য ও ৬৯টি ব্রোঞ্জ জিতেছে। চতুর্থ স্থানে রয়েছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের নামের পাশে রয়েছে ১৯টি স্বর্ণ, ২৫টি রৌপ্য ও ২৯টি ব্রোঞ্জ। আর পঞ্চম স্থানে থাকা বাংলাদেশ ষষ্ঠ দিন শেষ করেছে ৪টি স্বর্ণ, ১৮টি রৌপ্য ও ৫১টি ব্রোঞ্জপদক নিয়ে। ষষ্ঠ স্থানে থাকা মালদ্বীপ গতকাল প্রথমবারের মতো স্বর্ণ জয় করে।

এখন তাদের পদক তালিকায় রয়েছে ১টি স্বর্ণ ও ২টি ব্রোঞ্জ। আর তালিকার তলানিতে থাকা ভুটান এখনো স্বর্ণ জিততে পারেনি। তারা শুধু ৬টি ব্রোঞ্জ জিতেছে।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj