অভিশংসন তদন্ত কংগ্রেসে : খাঁড়া ঝুলছে ট্রাম্পের মাথার ওপর

শনিবার, ৩০ নভেম্বর ২০১৯

কাগজ ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসন প্রক্রিয়া নিয়ে ব্যস্ত এখন দেশটির কংগ্রেস বা প্রতিনিধি সভা। চলমান অভিশংসন শুনানিতে অংশ নিতে আগামী ৩ ডিসেম্বর প্রেসিডেন্টকে আমন্ত্রণও জানানো হয়েছে। বিচারিক কমিটির চেয়ারম্যান বলেছেন, হয় ট্রাম্প নিজেই এসে শুনানিতে অংশ নিক, নতুবা এ বিষয়ে অযথা নালিশ করে বেড়ানো বন্ধ করুক।

চেয়ারম্যান ন্যাডলার জানান, ট্রাম্পকে আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি দিয়েছেন তিনি। শুনানিতে অংশ নিলে ট্রাম্প নিজেই সাক্ষীদের জেরা করতে পারবেন। এদিকে ট্রাম্পের অভিশংসন নিয়ে খোদ ডেমোক্র্যাট শিবিরেই বিভক্তি দেখা দিয়েছে। অন্যদিকে টুইটারে নিজের পেশিবহুল কল্পিত ছবির পোস্ট দিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফের জল্পনা-কল্পনার ঝড় তুলে দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। খবর এএফপি, এনডিটিভি।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির জেলেনস্কির টেলিফোনে আলাপে আগামী নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক প্রতিদ্ব›দ্বী জো বাইডেনের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ করার লক্ষ্যে তার ছেলে হান্টার বাইডেনের অতীত ব্যবসার ব্যাপারে তদন্তের জন্য জেলেনস্কিকে চাপ দেন ট্রাম্প। বিনিময়ে সামরিক সহায়তা তহবিল অনুমোদন করিয়ে দেয়ার লোভ দেখান। এর মধ্য দিয়ে ব্যক্তিগত কাজে প্রেসিডেন্টের ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন তিনি। এ পদক্ষেপ তাকে অভিশংসনযোগ্য করে তুলেছে। ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগে গত ২৪ সেপ্টেম্বর অভিশংসন তদন্ত শুরু করে প্রতিনিধি পরিষদের তিনটি কমিটি।

তদন্তের অংশ হিসেবে প্রথমে রুদ্ধদ্বার কক্ষে সাক্ষ্য নেয়া হয়। পরে প্রকাশ্য শুনানি শুরু হয়। কংগ্রেসের গোয়েন্দা কমিটির প্রধান অ্যাডাম শিফ জানান, চূড়ান্ত প্রতিবেদন তৈরি হচ্ছে। তা ৩ ডিসেম্বর প্রকাশ হবে। এদিকে অভিশংসন তদন্তের বিরুদ্ধে লাগাতার সমালোচনা ও কটাক্ষ করে আসছেন ট্রাম্প। বলেছেন, এর মধ্যে বিরোধীদের ষড়যন্ত্র দেখতে পাচ্ছেন তিনি। অন্যদিকে, অভিশংসন ইস্যুতে ডেমোক্র্যাট শিবিরেই বিভক্তি স্পষ্ট হয়ে উঠছে। আইওয়ার ডেমোক্রেটিক প্রতিনিধি সিনথিয়া অ্যাক্স বলেন, থ্যাংকস-গিভিং ডের ছুটিতে নিজের নির্বাচনী এলাকায় গিয়ে সমর্থকদের তোপের মুখে পড়েছেন তিনি। ওই অঞ্চলের কৃষকরা চলমান অভিশংসন তদন্তের বিরুদ্ধে সুস্পষ্ট মত ব্যক্ত করেছেন বলে জানান তিনি। এক সমর্থক তাকে সরাসরি বলেন, অভিশংসনের জন্য ভোট নিয়ো না। বিষয়টি নিয়ে আমি রীতিমতো ক্লান্ত। আইওয়াতে যখন এ ঘটনা ঘটছিল, তখন নিউজার্সির হোয়ার্টনে টম মালিনস্কিকে রীতিমতো তারকার সম্মানে বরণ করে নেয় প্রায় দেড়শ ডেমোক্র্যাট সমর্থকের একটি জমায়েত। সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট চাইলে যে কোনো বৈদেশিক নীতিতে নিজের মতো অবস্থান নিতে পারেন। কিন্তু এমন কোনো পররাষ্ট্রনীতিগত অবস্থান নিতে পারেন না, যা শুধু তারই স্বার্থ সংরক্ষণ করবে।

সব মিলিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সময়টা এখন যে মোটেই ভালো যাচ্ছে না, তা বলাই যায়। তবে টুইটে তার শেয়ার করা ছবি দেখলে ঠিক তা মনে হবে না। সেখানে নিজের একটি ছবি পোস্ট করেছেন ট্রাম্প। ছবিতে দেখা যায় ট্রাম্পের কঠিন পেশি ও পেটানো চেহারা। কাল্পনিক চরিত্র বক্সার রকি বালবোয়ার সাজে ট্রাম্পের নতুন ছবি টুইটারে ঝড় তুলেছে। ইতোমধ্যেই ছবিটির লাইক ৫ লাখ ৪৮ হাজার, রিটুইট ১ লাখ ৬৩ হাজার, মন্তব্য ১ লাখ ২৯ হাজার হয়ে গেছে।

রকি থ্রি ছবিতে বক্সারের বেশে সিলভারস্টার স্ট্যালোন জিতে নিয়েছিলেন লাখো দর্শকের মন। আর সেই ছবির প্রধান চরিত্রকে নিয়ে ট্রাম্প আচমকা এমন ছবি কেন পোস্ট করলেন, সেই আলোচনা এখন তুঙ্গে। এ ছবি দিয়ে কি তিনি নিজের ‘শক্তিশালী’ ভাবমূর্তি তুলে ধরতে চাইলেন? জানিয়ে দিলেন, সব বাধা জয় করে ফের বিজয়ীর বেশে উঠে আসবেন তিনি?

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj