টুকি-টাকি

শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯

৯ বছর বয়সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি

কাগজ ডেস্ক : শুনতে বিস্ময়কর মনে হলেও মাত্র ৯ বছর বয়সেই বেলজিয়ান এক বালক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি নিতে চলেছে। বলা হচ্ছে, আসছে ডিসেম্বর মাসে সে তার ডিগ্রি অর্জন করবে এবং সেরকম হলে বিশ্বে সে-ই হবে সবচেয়ে কম বয়সী বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রিধারী কোনো ব্যক্তি। লরেন সিমন নামে এই বালকটি বিবিসিকে বলেছে, তার বয়স যখন মাত্র ৬ তখনই সে হাই স্কুলে পড়াশোনা শুরু করে। সে আশা করছে, আগামী মাসে সে হল্যান্ডের আইন্ডহফেন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়াশোনা শেষ করতে পারবে। তার বয়স যখন আট তখন থেকে সে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে শুরু করে। লরেন বলেছে, তার স্বপ্ন কৃত্রিম অঙ্গ প্রত্যঙ্গ তৈরি করা এবং এজন্যে সে এখন মেডিসিনে পড়াশোনা করতে চায়। বিশেষ করে সে কৃত্রিম হৃৎপিণ্ড তৈরি করতে চায়। স্কুল লরেনের কাছে খুব একটা আনন্দের জায়গা ছিল না। সে বলছে, স্কুল হচ্ছে একঘেয়ে জায়গা। তবে সে বন্ধুদের সঙ্গে কম্পিউটার গেম খেলতে পছন্দ করে। সে নিজেকে খুবই অলস প্রকৃতির বলেও দাবি করেছে। সাংবাদিকদের লরেন জানিয়েছে, সে দাবা খেলে না এবং কোনো বাদ্যযন্ত্রও বাজাতে পারে না। কিন্তু সে ভিডিওতে ‘ফোর্টনাইট’ ও ‘মাইনক্রফ্ট’ গেম খেলতে ভালোবাসে, এবং নেটফ্লিক্সেও ছবি দেখে।

বিয়ের কনেকে স্বর্ণ কিনতে টাকা দেবে সরকার

কাগজ ডেস্ক : বিয়েতে পাত্রীকে ১০ গ্রাম স্বর্ণ বা তা কেনার জন্য ৩০ হাজার টাকা দেবে সরকার। এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতের আসাম রাজ্য সরকার। এ জন্য ‘অরুন্ধতী’ নামে একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার। তবে সবাই এই সুযোগ পাবেন না। এ ক্ষেত্রে কিছু শর্ত জুড়ে দেয়া হয়েছে। সরকারি একটি সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, বাল্যবিবাহে রাশ টানতে ‘অরুন্ধতী’ প্রকল্পে বছরে ৮০০ কোটি টাকা ব্যয় করবে রাজ্য। এই প্রকল্পের আওতায় স্বর্ণ কিনতে কনের হাতে ৩০ হাজার টাকা দেবে আসাম সরকার। শুধু বাল্যবিবাহ বন্ধ করা নয়, সেইসঙ্গে নারীর ক্ষমতায়নও সরকারের লক্ষ্য। বুধবার আসামের অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা গুয়াহাটিতে জানান, রাজ্য মন্ত্রিসভায় এই মর্মে একটি প্রস্তাব পাস হয়েছে। ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ‘অরুন্ধতী’ প্রকল্প কার্যকর হবে। তবে সবাই এই অরুন্ধতী প্রকল্পের আওতায় আসবেন না। যাদের অভিভাবকদের (মা-বাবার মিলিত রোজগার) বার্ষিক আয় ৫ লাখ টাকার উপরে, তারা এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হবেন না। শুধু তাই নয়, প্রথমবার বিয়ের ক্ষেত্রেই কেবল এই উপহার পাওয়া যাবে। অর্থমন্ত্রী জানান, বিয়ে বৈধ নথিভুক্ত হলে, তবেই এই টাকা মিলবে।

দোকানে গিয়ে ওষুধ নিল আহত হনুমান

কাগজ ডেস্ক : দুই হনুমান মিলে মারামারি করছিল। তাদের দেখতে ভিড় জমেছিল। কে কাকে আঘাত করে মাটিতে ফেলতে পারে তার জন্যই তুমুল মারামারি হচ্ছিল হনুমান দুটির মধ্যে। তাদের মারামারি দেখে অনেকে হাততালিও দিতে থাকেন। মারামারিতে আহতও হয় তারা। কিছুক্ষণ পর রণে ভঙ্গ দিয়ে একটি হনুমান পালিয়ে যায়। অন্যটি বসে থাকে চুপ করে। বেশ কয়েক জায়গায় ক্ষতস্থান থেকে রক্ত ঝরতে দেখা যায়। এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বীরভূমে। সম্প্রতি মল্লারপুর স্টেশন চত্বরে যাত্রীদের নিয়ে টোটোর যাওয়া আসা চলতেই থাকে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, আচমকা একটি টোটোয় চড়ে বসে আহত হনুমানটি। করুণ চোখে সহযাত্রীদের গায়ে হাত রেখে বোঝানোর চেষ্টা করে সে আক্রমণ করবে না। মল্লারপুর স্টেশন থেকে কিছু দূরে পঞ্চায়েত ভবন। সেখানেই একটি ওষুধের দোকানের সামনে হুট করেই নেমে পড়ে হনুমানটি। ওষুধ দোকানের মালিক আনাজুল আজিম বলেন, দোকানের সামনে বেঞ্চে বসে অপেক্ষা করছিল হনুমানটি। দোকানের ভিড় একটু কমতেই লাফ দিয়ে কাউন্টারে উঠে বসে কোমরের নিচে ও শরীরের অন্য অংশে ক্ষতস্থানগুলো দেখাতে থাকে। আমার হাত ধরে এমন ভাব করে যেন চিকিৎসা চাইছে। দোকানে ওষুধ নিতে এসেছিলেন শক্তিপদ মিস্ত্রি নামে স্থানীয় এক যুবক।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj