মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা : আ.লীগে মোস্তাকের মতো নেতা আছে

বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : খন্দকার মোস্তাক ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা। তিনি বঙ্গবন্ধুর খুনিও। বর্তমানেও আওয়ামী লীগে মোস্তাকের মতো অনুপ্রবেশকারী রয়েছে। যাদের সহায়তায় অন্যরা দলে অনুপ্রবেশ করছে। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের কেন্দ্রীয় নেতারা। স্থানীয় সরকার নির্বাচনে কক্সবাজারের মহেশখালীর শাপলাপুর ইউনিয়নে মুক্তিযুদ্ধে অগ্নিসংযোগকারীর ছেলে শিবির কর্মী ও উপজেলা বিএনপির সদস্য আবদুল খালেককে মনোনয়ন দেয়ার প্রতিবাদে গতকাল মঙ্গলবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়।

সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি মেহেদী হাসানের সভাপতিত্বে এ সময় অন্যদের মধ্যে সাধারণ সম্পাদক মো. সেলিম রেজা, সুপ্রিম কোর্টের সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এম আর সিদ্দিকী সাঈদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মেহেদী হাসান বলেন, আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনে অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানের অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। অথচ এই পরিস্থিতির মধ্যেও আওয়ামী লীগে লুকিয়ে থাকা কিছু ‘মোস্তাক’ মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী লোকদের দলে টানছে। এরই অংশ হিসেবে শাপলাপুর ইউনিয়নে মুক্তিযুদ্ধে অগ্নিসংযোগকারীর ছেলে শিবির কর্মী ও উপজেলা বিএনপির সদস্য আবদুল খালেককে নৌকা প্রতীক দেয়া হয়েছে। কাদের ইশারায় আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারীতে ভরে যাচ্ছে সেটি খতিয়ে দেখা উচিত।

এ প্রতিবেদকের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি ইতোমধ্যে ১ হাজার ৫০০ অনুপ্রবেশকারীর তালিকা করা হয়েছে। তবে আমাদের হিসাবে আরো বেশি। প্রয়োজনে সারাদেশের জেলা-উপজেলায় আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারীদের তথ্য দিয়ে সরকারকে সহযোগিতা করতে চান তারা।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj