সংসদে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন রাঙ্গা

বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : জাতীয় সংসদে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির এমপিদের হৈ-হট্টোগোল ও চিৎকার-চেঁচামেচির মধ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও যুবলীগ নেতা শহীদ নূর হোসেন নিয়ে বেফাঁস মন্তব্যের জন্য নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মশিউর রহমান রাঙ্গা।

গত রাতে সংসদ অধিবেশনে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে কার্যপ্রণালি বিধিতে ব্যক্তিগত কৈফিয়ত সম্পর্কিত ধারায় তিনি এ ক্ষমা চান।

রাঙ্গা বলেন, আমি ক্ষমা চাচ্ছি। আমার সহকর্মীরা আমাকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে প্রতিমন্ত্রী বানিয়েছেন, হয়ত আমার দল ক্ষমতায় থাকলেও মন্ত্রী হতে পারতাম না।

বঙ্গবন্ধু ও নূর হোসেনকে নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করার জন্য মঙ্গলবার তাকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবি তোলা হয় সংসদ থেকে। কোনো কোনো এমপি তাকে জাতীয় পার্টি থেকে বহিস্কারও চান। আর জাতীয় পার্টির কয়েকজন সিনিয়র নেতা বলেন এটা তাদের দলীয় বক্তব্য নয়।

এরপর রাঙ্গা বলেন, আমাদের সাবেক সিনিয়র মন্ত্রী সংসদে এই নিয়ে আলোচনা করেছেন। মঙ্গলবার সংসদে স্থানীয় সরকারের সাবেক সিনিয়র মন্ত্রীও আলোচনা করেছেন। আমি মনে করি তারা আমাকে শাসন করেছেন। আমি এটা ভুল করেছি এবং ভুল করার জন্য আমি তার (নূর হোসেন) পরিবারের কাছে ক্ষমা চেয়েছি। এমনকি বিবৃতিও দিয়েছি।

তিনি বলেন, আমি মন্ত্রী থাকা অবস্থায় সংসদে ৩৭ বার প্রশ্নের জবাব দিয়েছি। সে সময় অসংখ্য বার আমি জাতির পিতা নিয়ে কথা বলেছি। এ সময় জয় বাংলা বলেছি। তাই জাতির পিতা নিয়ে আমি যদি কোনো রকমের ভুল করে থাকি তার জন্য আমি ক্ষমা চাচ্ছি, নিঃশর্ত ক্ষমা চাচ্ছি।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj