জামাতার বাড়িতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন শাশুড়ি

রবিবার, ১০ নভেম্বর ২০১৯

হারুন অর রশিদ, আমতলী (বরগুনা) থেকে : মেয়ের জামাইয়ের বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন শাশুড়ি খাদিজা বেগম (৬০)। জামাতা নাসির উদ্দিনকে (৩৫) বাঁচাতে গিয়ে তিনি মারা যায়। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার রাত ৮টার দিকে আমতলী পৌর শহরের বাসুগী এলাকায়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, পৌর শহরের বাসুগী এলাকার মো. নাসির উদ্দিন সরদার বসতঘরে ঢুুকতে গেলে তার হাতে থাকা টর্চলাইটটি মাটিতে পড়ে যায়। তিনি সেটা তুলে দাঁড়ালে বসতঘরের বিদ্যুৎ লাইনের তারে তার মাথা স্পর্শ করে। এতে নাসির বিদ্যুতায়িত হয়ে চিৎকার দিতে থাকেন। এ সময় মেয়ের জামাইয়ের বাড়িতে বেড়াতে আসা শাশুড়ি খাদিজা বেগম জামাতাকে বাঁচাতে এগিয়ে এসে তিনিও বিদ্যুতায়িত হন। তখন স্থানীয়রা বিদ্যুৎ অফিসের সাব-স্টেশনে ফোন দিয়ে পৌর শহরের বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করান।

স্বজন ও স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় শাশুড়ি ও জামাতাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শাশুড়িকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত জামাতাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন।

নিহত খাদিজা বেগম পটুয়াখালী জেলার দুমকী উপজেলার আ. বারেকের স্ত্রী। তিনি ১০-১৫ দিন আগে মেয়ের জামাই নাসির উদ্দিন সরদারের বাড়িতে বেড়াতে আসেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শাকিলা আক্তার বলেন, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই খাদিজা বেগম মারা গেছেন।

আহত জামাতা নাসির সরদারের স্ত্রী সুমী আক্তার কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, আমার স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে আমার মা বিদ্যুতায়িত হয়ে মারা গেছেন।

আমতলী থানার ওসি মো. আবুল বাসার বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। স্বজনদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে লাশ ময়নাতদন্ত না করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj