মাদারীপুরে দুপক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ২০

শনিবার, ৯ নভেম্বর ২০১৯

জাহাঙ্গীর আলম, মাদারীপুর থেকে : জেলার সদর উপজেলার পাঁচখোলা ইউনিয়নের পাঁচখোলা এলাকায় গত বৃহস্পতিবার দুপুরে আধিপত্য নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে উভয় পক্ষের নারীসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে দুজনকে গুরুতর অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় দুই ইটভাটার মালিককে আটক করেছে সদর মডেল থানা পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, সদর উপজেলার পাঁচখোলা ইউনিয়নের পাঁচখোলা এলাকার সোবাহান ফকিরের ইটের ভাটার পাশেই আব্দুল মান্নান খানের ইটের ভাটা। ভাটায় ইট বেচাকেনা ও জ¦ালানি কাঠ সংগ্রহ করা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দুই ভাটার মালিকপক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। সেই বিরোধের জের ধরে বৃহস্পতিবার দুপুরে সোবাহান ফকির তার লোকজন নিয়ে মান্নানের ইটভাটায় গিয়ে পাওনা টাকা দাবি করে। টাকা না দেয়ায় দুই পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডা বাধে। এক পর্যায়ে দুই পক্ষের লোকজনই দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয়পক্ষের আহত হয় ২০ জন। আহতরা মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে পলাশ মাতুব্বর (৩০) ও সোহাগ মোল্লাকে (২৮) গুরতর অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে চিকিৎসক।

মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সওগাতুল আলম বলেন, খবর শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। এ ঘটনায় দুই পক্ষের দোষ আছে। তাই আমরা দুই পক্ষের সোবাহান ও মান্নানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছি। দুই পক্ষের বিরুদ্ধেই মামলা হবে।

সারাদেশ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj