আফ্রিকায় স্বর্ণখনির শ্রমিকদের গাড়িতে হামলায় নিহত ৩৭

শুক্রবার, ৮ নভেম্বর ২০১৯

কাগজ ডেস্ক : বুরকিনা ফাসোর পূর্বাঞ্চলে একটি সোনার খনির কর্মীদের বহনকারী গাড়িবহরে বন্দুকধারীদের চোরাগোপ্তা হামলায় ৩৭ বেসামরিক নিহত হয়েছেন। এ হামলার ঘটনায় ৬০ জনেরও বেশি আহত হন। গত বুধবার দেশটির আঞ্চলিক কর্তৃপক্ষের বরাতে এসব তথ্য জানায় বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ বুরকিনা ফাসোর ওই সোনার খনিটি কানাডার সেমাফো কোম্পানি পরিচালনা করে থাকে। সেমাফো জানায়, বুরকিনার পূর্বাঞ্চলীয় এলাকা অ্যাস্টে তাদের বোনগৌ খনিতে সামরিক পাহারায় পাঁচটি বাসে কর্মীদের নেয়ার সময় রাস্তায় হামলাটি হয়। বোনগৌ খনি থেকে প্রায় ৪০ কিলোমিটার দূরে হামলার ঘটনাটি ঘটে।

পরে অ্যাস্টের গভর্নর দপ্তর জানায়, অজ্ঞাত সশস্ত্র ব্যক্তিরা সেমাফোর কর্মীদের বহনকারী একটি গাড়িবহরের ওপর চোরাগোপ্তা হামলা চালিয়েছে। এতে অন্তত ৩৭ জন বেসামরিক লোক নিহত ও ৬০ জনেরও বেশি আহত হন। হামলায় নিরাপত্তা বাহিনীর বহু সদস্যও নিহত হয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। নিরাপত্তা সূত্রগুলোর ভাষ্যমতে, বহু লোক এখনো নিখোঁজ থাকায় হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

দুটি সূত্র রয়টার্সকে জানায়, গাড়িবহরের সামনে থাকা সামরিক যান লক্ষ্য করে প্রথমে আইইডির (ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস) বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এর পরই অজ্ঞাত সংখ্যক বন্দুকধারী গাড়িবহর লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ শুরু করে। এমন জায়গায় হামলাটি চালানো হয় যেখানে মোবাইল ফোনের কোনো নেটওয়ার্ক ছিল না।

ওই দুই সূত্রের একজন জানান, বন্দুকধারীরা পাহারারত সামরিক সদস্যদের ওপর হামলার পাশাপাশি বাসগুলোকেও টার্গেট করেছে যা সচরাচর ঘটে না। গত ডিসেম্বরেও একই সড়কে পুলিশের একটি গাড়ির ওপর অনুরূপ হামলা চালানো হয় যাতে পাঁচ পুলিশ নিহত হন।

খনি থেকে চল্লিশ কিলোমিটার দুরের এ ঘটনায় ৬ জনের বেশি আহত হন। তাদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানায় দেশটির গণমাধ্যম।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj