হাটহাজারী : ই-সিগারেটের ভয়ঙ্কর নেশায় আসক্ত স্কুল শিক্ষার্থীরা

বৃহস্পতিবার, ৭ নভেম্বর ২০১৯

বাবলু দাশ, হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) থেকে : হাটহাজারীতে স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও তরুণ-যুবকরা তামাকপণ্যের নতুন ও আধুনিক রূপ ‘ই-সিগারেটের’ ভয়ঙ্কর নেশায় আসক্ত হচ্ছে।

অনলাইন জগতের বিভিন্ন পণ্য বিক্রির ওয়েবসাইটে তরুণ প্রজন্মের মনকাড়া ই-সিগারেটের বিজ্ঞাপন কিংবা বন্ধুদের খপ্পরে পড়ে মেধাবী এসব শিক্ষার্থী এ নেশায় দিন দিন আক্রান্ত হচ্ছে। সাধারণ সিগারেটের নেশার বিকল্প, ক্ষতি কম হওয়ার আশঙ্কা কিংবা নিজেদের স্মার্ট ধূমপায়ী ভেবে তরুণ প্রজন্ম আজ এ নেশায় বেশি আসক্ত।

এদিকে তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন ভঙ্গ করে তামাকজাত পণ্য বিক্রি করার অভিযোগে গত মঙ্গলবার হাটহাজারী পৌর বাজারের কাচারী সড়ক ও বাসস্ট্যান্ড এলাকায় চারটি ডিপার্টমেন্ট স্টোরে অভিযান পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে এসব দোকান থেকে বিপুল পরিমাণ ই-সিগারেট জব্দ করা হয়েছে। অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মাদ রুহুল আমীন। তিনি বলেন, হাটহাজারী উপজেলার অনেক স্কুলের প্রধান শিক্ষকরা ই-সিগারেট বিষয়ে আমাকে অভিযোগ করেছেন। স্কুল-কলেজ ফাঁকি দিয়ে ছাত্ররা দলবেঁধে ই-সিগারেট খায়। তারপর বড় ভাইয়ের সান্নিধ্য সর্বশেষে কিশোর গ্যাং হয়।

তিনি আরো বলেন, আজ চারটি দোকানে অভিযানে গেলে দোকানিরা জানান, মূলত ১৪/১৫ বছরের কিশোররাই ই-সিগারেট নেয়। শুধু নেয় তা না, তারা দোকানিকে বেশি দামের ই-সিগারেট আনতে বলে। তবে দোকানদাররা বাচ্চাদের কাছে ই-সিগারেট আর বিক্রি করবে না বলে তারা আমাকে জানিয়েছেন। তাদেরও সামাজিক দায়বদ্ধতা আছে। তাই কিশোরদের অধঃপতন রোধে মা-বাবাসহ সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান করছি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা নিয়াজ মোর্শেদ ও মডেল থানার পুলিশ।

সারাদেশ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj