আলবেয়ার কামু

বৃহস্পতিবার, ৭ নভেম্বর ২০১৯

আলবেয়ার কামু (জন্ম : ৭ নভেম্বর, ১৯১৩; মৃত্যু : ৪ জানুয়ারি, ১৯৬০) একজন ফরাসি বংশোদ্ভূত আলজেরীয় সাহিত্যিক। কামু আলজেরিয়ার মন্দোভিতে জন্মগ্রহণ করেন। তার শৈশব দারিদ্র্যের মধ্যে কাটলেও নিরানন্দ ছিল না। তিনি আলজিয়ার্স বিশ্ববিদ্যালয়ে দর্শন নিয়ে পড়াশোনা করেন এবং পরে সাংবাদিকতাকে পেশা হিসেবে গ্রহণ করেন। একই সঙ্গে তিনি একটি তারুণ্যনির্ভর প্রগতিবাদী নাট্যদল গঠন করেন। তার প্রথমদিককার প্রবন্ধগুলো গ্রন্থে সংকলিত করা হয়। তিনি প্যারিসে যান এবং আলজেরিয়ায় প্রত্যাবর্তনের পূর্বে সেখানে পারি সোয়ার নামক দৈনিক পত্রিকাতে কিছুকাল কাজ করেন। তার লেখা নাটক কালিগুলা ১৯৩৯ সালে প্রকাশিত হয়। তার শুরুর দিককার দুটি উল্লেখযোগ্য বই, লেত্রঁজে (ঞযব ঙঁঃংরফবৎ) এবং ল্য মিথ দ্য সিসিফাস (ঞযব গুঃয ড়ভ ঝরংুঢ়যঁং) প্রকাশিত হয় তিনি আবারো প্যারিসে পাড়ি জমানোর পর। ১৯৪১ সালে জার্মানি যখন ফ্রান্স দখল করে নেয়, সেইসময় তিনি প্রতিরোধ আন্দোলনের একজন পুরোধা বুদ্ধিজীবী হয়ে ওঠেন। তিনি গুপ্ত পত্রিকা কোঁবা প্রতিষ্ঠা করতে সাহায্য করেন এবং এটিতে লেখা দেয়া ও সম্পাদনার কাজও করেন। যুদ্ধপরবর্তী সময়ে তিনি লেখালেখিতে আত্মনিয়োগ করেন এবং বেশ কিছু বই লিখে আন্তর্জাতিক খ্যাতি লাভ করেন। পঞ্চাশের দশকের শেষার্ধে নাট্যশালার প্রতি কামুর ভালোবাসা সক্রিয়তা পায়। এ সময় তিনি উইলিয়াম ফকনারের ‘জনৈকা সন্ন্যাসিনীর মৃত্যুতে প্রার্থনা’ এবং দস্তয়েভ?স্কির ‘অধিকৃত’-এর মঞ্চ সংস্করণ রচনা করেন এবং নাটকগুলোর নির্দেশনার দায়িত্বও পালন করেন। তিনি ১৯৫৭ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পান। সবচেয়ে কম বয়সে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার বিজয়ীদের মধ্যে রাড?ইয়ার্ড কিপলিংয়ের পর পরই তার অবস্থান। সামাজিক নানান সংকট, রাজনৈতিক টানাপড়েন, খরা, অভাব, যন্ত্রণাকে তিনি উপলব্ধির ভেতর এনেছেন। তিনি দ্রোহকে লালন করতে পছন্দ করেছেন, এর ভেতর দিয়ে বাঁচা-মরাকে অর্থবহ করতে চেয়েছেন, মূল্যবোধকে দাঁড় করাতে চেয়েছেন তার লেখায়। কামু এক সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করেন।

মুক্তচিন্তা'র আরও সংবাদ
মুহম্মদ জাফর ইকবাল

ধূসর আকাশ, বিষাক্ত বাতাস

অধ্যাপক ড. অরূপরতন চৌধুরী

আসুন, পরিবারকে ডায়াবেটিসমুক্ত রাখি

ফাহিম ইবনে সারওয়ার

গভীর সংকটে জাবি

মাহফুজা অনন্যা

আবারো আবরারের অপমৃত্যু!

Bhorerkagoj