বিপিএল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

বুধবার, ৬ নভেম্বর ২০১৯

খেলা প্রতিবেদক : সারা বিশে^ যে কয়টি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয় তার মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় বাংলাদেশের বিপিএল। ভারতের আইপিএলের পরেই গুরুত্ব পায় বিপিএল। অন্যন্য বারের তুলনায় এবারের বিপিএলের আসর বেশ জমজমাট হচ্ছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) এবারের আয়োজনটি হতে যাচ্ছে সম্পূর্ণ ভিন্নভাবে। কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি থাকছে না। বিপিএলের আয়োজন এবং দল ব্যবস্থাপনা সম্পূর্ণটাই করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এবারের বিপিএলের নাম দেয়া হয়েছে, ‘বঙ্গবন্ধু’ বিপিএল। গতবার বিপিএলের উদ্বোধনী জমজমাট না হলেও এবার উদ্বোধনীতে নানা চমক দেখাতে আগ্রহী বিপিএল কর্তৃপক্ষ। তারই অংশ হিসেবে এবার বিপিএল উদ্বোধন করবেন প্রধামন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ৮ই ডিসেম্বর। ৩ ডিসেম্বর হওয়ার কথা থাকলেও সাত দলের অংশগ্রহণের ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএলের’ উদ্বোধন এবং শুরুর তারিখ নানা কারণে ৫ দিন পিছিয়ে যাচ্ছে।

এদিকে বিপিএল শুরু হতে আর এক মাসও সময় বাকি নেই। অথচ এখনো বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফট অনুষ্ঠিত হয়নি। দলগুলোর কোচ ঠিক হয়নি। শুধু তাই নয়, সাতটি দলের স্পন্সর পার্টনারদের নামও ঘোষণা হয়নি। তবে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত ছিল ১২ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফট। কিন্তু তাদের এই সিদ্ধান্ত শেষ পর্যন্ত সঠিক থাকে কিনা তা নিয়ে দেখা দিয়েছে সংশয়।

কারণ বিসিবিতে জোর গুঞ্জন প্লেয়ার্স ড্রাফট পেছানো হচ্ছে। ৩ দিন পিছিয়ে ১৫ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে পারে প্লেয়ার্স ড্রাফট।

যদিও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক জানিয়েছেন, ‘প্লেয়ার্স ড্রাফট পেছানো হবে। তবে সেটা তিন দিন পিছিয়ে ১৫ নভেম্বর নাকি অন্য কোনো তারিখে, তা ঠিক বলা যাচ্ছে না।’ বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সদস্য সচিবের নিশ্চিত তারিখ জানাতে না পারার কারণ আছে। ১৫ তারিখ প্লেয়ার্স ড্রাফট আয়োজনের সম্ভাবনা কম।

কারণ ১৪ নভেম্বর থেকে শুরু হবে বাংলাদেশ-ভারত প্রথম টেস্ট। বাংলাদেশ দলের টেস্ট চলাকালীন সময়ে প্লেয়ার্স ড্রাফট আয়োজন করা হবে কিনা- তা নিয়েও সংশয় দেখা দিয়েছে।

অন্যদিকে গুঞ্জন চলছে বিপিএলের সপ্তম আসর ৫ দিন পিছিয়ে যাচ্ছে। ৩ ডিসেম্বরের পরিবর্তে বিপিএলের উদ্বোধন হবে ৮ ডিসেম্বর। আর টুর্নামেন্ট শুরু হতে পারে ১১ কিংবা ১২ ডিসেম্বর।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবার বিপিএলে ফ্র্যাঞ্চাইজি থাকবে না। বিপিএলের দল গঠন করবে বিসিবি, পরিচালনাও করবে বিসিবি। প্রতিটি দল পরিচালনার জন্য বিসিবি একজন করে পরিচালককে প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেবে। এ ছাড়া থাকবে স্পন্সর পার্টনার।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj