আইন না মানলে কঠিন সাজা

রবিবার, ৩ নভেম্বর ২০১৯

কার্যকর হয়েছে নতুন সড়ক পরিবহন আইন। বহুল আলোচিত আইনটি প্রণয়নের এক বছরেরও বেশি সময় পর আইনটি আজ থেকে কার্যকর হয়েছে। নতুন আইনটিতে জেল-জরিমানার পরিমাণ বেড়েছে আগের তুলনায় কয়েকগুণ। চালকের লাইসেন্স থেকে শুরু করে, গাড়ির গতিসীমার ওপরও বাড়ানো হয়েছে সাজা ও দণ্ডের পরিমাণ। জরিমানা বেড়েছে পথচারীদের যত্রতত্র রাস্তা পারাপার বন্ধেও। নতুন আইনে লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালালে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা অথবা ৬ মাসের জেল হতে পারে।

এ ছাড়াও ভুয়া লাইসেন্স ব্যবহার করলে ১ থেকে ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানা, ৬ মাস থেকে ২ বছর পর্যন্ত জেল। রেজিস্ট্রেশন বিহীন গাড়ি চালালে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা বা সর্বোচ্চ ছয় মাস জেল। ফিটনেসবিহীন গাড়ি চালালে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা অথবা ৬ মাস জেল। ট্রাফিক সংকেত অমান্য করলে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা জরিমানা বা সর্বোচ্চ একমাস জেল। অতিরিক্ত পণ্য পরিবহন করলে সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা জরিমানা বা এক বছর জেল। অতিরিক্ত গতিতে গাড়ি চালালে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা জরিমানা বা একমাস জেল। অবৈধ পার্কিংয়ের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা, উল্টো পথে গাড়ি চালালে ১০ হাজার টাকা, হেলমেট না থাকলে ১০ হাজার টাকা, মদ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালালে ১০ হাজার টাকা, সিটবেল্ট না বাঁধলে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা, গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ফোনে কথা বললে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এ ছাড়াও মহাসড়কে ধীরগতিতে গাড়ি চালালে সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা জরিমানা বা এক মাস জেল। আবার বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে কাউকে আহত করলে সর্বোচ্চ তিন লাখ টাকা জরিমানা বা তিন বছর জেল। বড় অঙ্কের জরিমানা হতে পারে পথচারিদের ক্ষেত্রেও। যত্রতত্র রাস্তা পারাপারের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা গুণতে হতে পারে পথচারীদের।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj