গাড়ি ড্রাইভিং করতে চাইলে

রবিবার, ৩ নভেম্বর ২০১৯

নিয়ম মেনে গাড়ি চালালে সড়কে দুর্ঘটনার সংখ্যা কমে যায় অনেকটাই। রক্ষা পায় নিজের কষ্টের টাকায় কেনা গাড়িটিও। এখানে আমরা সহজ ও কার্যকরী কিছু ড্রাইভিং টিপস দিচ্ছি, যাতে গাড়ি ড্রাইভিং নিরাপদ ও সহজ হয়। গাড়ি ড্রাইভিংয়ের সময় পাশের গাড়ি বা সামনের গাড়ি ওভারটেক করা আধুনিক যুগে গাড়ি দুর্ঘটনার একটি অন্যতম কারণ।

যখন আপনার হাঁটু কাঁপতে থাকে আর গাড়ির চাকা বেøা আউট হয়, তখন অনেকেই ব্রেক করেন। মনে করুন আপনি হাইওয়েতে আছেন আর ৬৫ কি.মি. ঘণ্টায় গাড়ি চালাচ্ছেন আর হঠাৎ শুনতে পেলেন পেছনের চাকা পাংচার হয়েছে।

আপনি বুঝতে পারছেন যে, গাড়ি আপনার নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে। আপনি অবচেতন মনেই হয়তো তখন ব্রেক করবেন, কিন্তু অবচেতন মনের এই ইচ্ছাটা ভালো কাজ দেবে না।

আপনি যদি ব্রেক করেন এটা সত্যি যে এভাবে ব্রেক করলে অন্য গাড়ি, যা আপনার দিকে আসছে তাদের দুর্ঘটনা হবে। আর এটি বেশি সত্যি পেছনের চাকা বেøা আউট হলে। সামনের চাকার ক্ষেত্রে বেøা আউট হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে, কারণ সামনের চাকা প্রায়ই দেখা হয়, কিন্তু পেছনের চাকা অনেক দিন চেক করা হয় না। গাড়ির চাকা বেøা আউট হলে ব্রেক করবেন না। বেøা আউটের ক্ষেত্রে আপনি যা করবেন তা হলো গিয়ার চেপে রাখবেন। কিন্তু কনুই রাখবেন না। খুব টাইট করে চেপে ধরুন আর গাড়িকে যতটা সম্ভব সোজা রাখুন। কারণ গাড়ির চাকা যখন সম্পূর্ণ বেøা আউট হবে এটি গাড়ির অ্যাঙ্করের মতো কাজ করবে। আপনি যদি ব্রেক করেন তাহলে ৬৫ কিলোমিটার বেগে চলন্ত গাড়ি হুমড়ি খাবে আর আপনি গুরুতর দুর্ঘটনার শিকার হবেন। গাড়ি নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য স্পিড দেওয়ার চেষ্টা করুন আর ধীরে ধীরে গিয়ার থেকে পা বের করার চেষ্টা করুন। তখন আপনি ধীরে ধীরে গাড়ি থামাতে পারবেন আর থেমে গেলে গাড়ি থেকে নেমে আপনার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে পারবেন। আপনি যদি আপনার পার্কিং ব্রেক কম ব্যবহার করেন, তাহলে এটা কিছু দিন পর কাজ করবে না। পার্ক করার সময় গাড়ি সোজা রাখাই বাঞ্ছনীয়। তবে অনেকেই জানেন না যে পার্কিংয়ে রাখার সময় গাড়িতে পার্কিং ব্রেক দিয়ে রাখতে হয়, তা আপনি যেখানেই যান না কেন।

আপনি জানেন যে, পার্কিং ব্রেককে এমার্জেন্সি ব্রেকও বলা হয়। নাম থেকেই বোঝা যায় যে, আপনি তখনই পার্কিং ব্রেক ব্যবহার করবেন, যখন আপনার গাড়ির সাধারণ ব্রেক কাজ করছে না বা কোনো যন্ত্র দিয়ে আপনার ব্রেক অচল করা হয়েছে। পার্কিং ব্রেকের কেবল এমনভাবে ডিজাইন করা যে, আপনি যদি প্রায়ই ব্যবহার না করেন তাহলে এটা আস্তে আস্তে অচল হতে থাকবে।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj