জেনে নিন : মেডিটেশন চর্চা করুন

রবিবার, ২৭ অক্টোবর ২০১৯

আজকের একটি আলোচিত টপিক হলো মাইন্ডফুলনেস এবং তা ভালো কারণে। হাজার হাজার বছর ধরে লোকজনে মাইন্ডফুলনেস মেডিটেশন চর্চা করলেও এর বিভিন্ন স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে জানা গেছে সা¤প্রতিককালে। একটি গবেষণায় গবেষকরা হিউম্যান রিসোর্সেস প্রফেশনালদের কিছু জটিল মাল্টিটাস্কের সিমুলেশনে নিযুক্ত করেন। কাজগুলো হলো ফোনের উত্তর দেয়া, মিটিংয়ের শিডিউল করা ও বিভিন্ন উৎস (যেমন- ফোন কল, ই-মেইল ও টেক্সট মেসেজ) থেকে তথ্য নিয়ে মেমো লেখা। এসব কাজ সম্পাদনের সময় ছিল ২০ মিনিট। কিছু অংশগ্রহণকারীকে ৮ সপ্তাহ ধরে মাইন্ডফুলনেস মেডিটেশনের ওপর প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছিল। দেখা গেছে, এই মেডিটেশন গ্রুপের সদস্যদের কাজে মনোযোগ ও একাগ্রতা অন্য গ্রুপের লোকদের (যাদের মাইন্ডফুলনেস মেডিটেশনের ওপর প্রশিক্ষণ দেয়া হয়নি) চেয়ে বেশি ছিল। মেডিটেশন গ্রুপের সদস্যরা কাজে দীর্ঘসময় যুক্ত থাকতে পেরেছিল, এক কাজ থেকে অন্য কাজে ঘনঘন জড়িত হননি এবং অন্য গ্রুপের তুলনায় অধিক কার্যকরভাবে কাজ সম্পন্ন করেছিল। কেবলমাত্র মেডিটেশন নয়, চর্চা করার জন্য অন্য মাইন্ডফুলনেসও রয়েছে। আপনার কাছে ডিপ ব্রিদিং এক্সারসাইজ বা গভীর শ্বাসক্রিয়াকে সহজ মনে হতে পারে কিন্তু চর্চা করতে গেলে বুঝবেন যে যত সহজ মনে করেছেন আসলে ততটা নয়, তবে চর্চা অব্যাহত রাখলে সময় পরিক্রমায় আরো সহজ হয়ে যাবে। এ ব্রিদিং এক্সারসাইজ যে কোনো জায়গায় যে কোনো সময়ে করা যায়। শেষ পর্যন্ত আপনি গভীর শ্বাসক্রিয়ার মাধ্যমে মন থেকে অমূলক চিন্তা তাড়াতে পারবেন ও কাজে ফোকাস করতে পারবেন।

অতীত রোমন্থনের প্রবণতা থাকলে অথবা ভবিষ্যৎ নিয়ে দুশ্চিন্তা করলে অথবা অন্য কোনো কারণে বর্তমানে অস্থিরতায় ভুগলে কোনো কাজে একাগ্রতা ধরে রাখা কঠিন। আপনি সম্ভবত লোকজনকে ‘বর্তমানের গুরুত্ব’ নিয়ে কথা বলতে শুনেছেন। হ্যাঁ, সফলতার অন্যতম চাবিকাঠি হলো বর্তমানকে ভালোভাবে ব্যবহার করা। অতীত বা ভবিষ্যৎ ভেবে হতাশ হলে বা দুশ্চিন্তা করলে কাজ থেকে মেন্টাল ফোকাস ছুটে যায়।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj