তিন তিনটা

বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯

অঙ্কের জাদু

প্রথম জাদু

১ থেকে ১০০ এর মধ্যে যে কোনো একটি সংখ্যা কল্পনা করো। এরপর সেই সংখ্যাটিকে ২ দিয়ে গুণ করো। প্রাপ্ত গুণফলকে ৫ গুণ করলে নতুন গুণফলের শেষে অবশ্যই ০ পাবে। তাই না? এখন শূন্যটি মুছে ফেলো।

দেখো প্রথমে যে সংখ্যাটি তুমি কল্পনা করেছিলে সেটি পেয়ে গেছো।

উদাহরণ-

মনে করো তুমি কল্পনা করেছিল ২৫।

তাহলে ২৫ ঢ ২ = ৫০

৫০ ঢ ৫ = ২৫০

২৫০ থেকে ০ বাদ দিলেই পেয়ে যাচ্ছো ২৫, যা তুমি কল্পনা করেছিলে।

এটি আসলে খুব সহজ একটি কৌশল। যে কোনো সংখ্যাকে ১০ দিয়ে গুণ করলে গুণফলের শেষে ০ থাকে। সেই ০ মুছে দিলে তা আবার আগের সংখ্যাটি পাওয়া যায়। এখানেও তাই ঘটেছে। তুমি যে সংখ্যাটি কল্পনা করেছো সেটিকে ১০ দিয়ে গুণ করা হয়েছে। কিন্তু সেটি হয়েছে দুই ধাপে। একবার ২ দিয়ে আর একবার ৫ দিয়ে।

৫ ঢ ২ = ১০।

এবার নিশ্চয়ই বুঝতে পেরেছো।

এরকম আরো অনেক ম্যাজিক আছে।

দ্বিতীয় জাদু

১ থেকে শুরু করে ১০ এর নিচে যে কোনো একটি সংখ্যা কল্পনা করো। সংখ্যাটিকে ২ দিয়ে গুণ করো। এবার গুণফলের সঙ্গে ৬ যোগ করো। তারপর যোগফলকে অর্ধেক করো মানে ২ দিয়ে ভাগ করো। ভাগফলের থেকে তোমার কল্পনা করা সংখ্যাটি বিয়োগ করে দেখো বিয়োগফল ৩। এটাও শুধুই বুদ্ধির খেলা। যুক্তিকে কৌশল হিসেবে কাজে লাগিয়ে, জাদুতে পরিণত করা হয়েছে।

তৃতীয় জাদু

যে কোনো একটি সংখ্যা কল্পনা করো। সংখ্যাটিকে ৩ দ্বারা গুণ করে গুণফলের সঙ্গে ৬ যোগ করো। এবার যোগফলকে ৩ দিয়ে ভাগ করো। প্রাপ্ত ভাগফল থেকে তুমি যে সংখ্যাটি কল্পনা করেছিলে সেটি বিয়োগ করো। দেখো বিয়োগফল ২।

:: শাহীদ হাসান

ইষ্টিকুটুম'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj