ফেসবুকের আসল মজা মোবাইল অ্যাপে

রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯

স্নুজ বাটন : একই ব্যক্তির কাছ থেকে বারবার বিরক্তিকর পোস্ট আসা ঠেকাতে পারে স্নুজ বাটন। কারও পোস্ট যদি কিছুদিনের জন্য থামিয়ে রাখতে চান তবে তার জন্য স্নুজ বাটন কাজে লাগানো যায়। ফেসবুকের নতুন স্নুজ ফিচার ব্যবহার করে কোনো ব্যক্তিকে বন্ধু তালিকা থেকে বাদ না দিয়েও তার পোস্ট ৩০ দিনের জন্য নিউজফিডে দেখানো বন্ধ করার সুযোগ আছে স্নুজে। বন্ধু, ব্র্যান্ড, গ্রুপের পোস্টের পাশে ট্রিপল-ডট বাটন চেপে স্নুজ অপশন নির্বাচন করলেই এক মাসের জন্য বিরক্তি থেকে মুক্তি।

পোস্ট হাইড : পোস্ট যদি নিউজ ফিডে রাখতে চান কিন্তু যতটা সম্ভব কম দেখার ইচ্ছা পোষণ করেন তবে ফেসবুক সে সুযোগ রেখেছে। পোস্টের পাশে ট্রিপল-ডট বাটনে চাপ দিয়ে হাইড পোস্ট করে দিতে হবে। এতে ওই পোস্টটি লুকানো যাবে। এ ছাড়া ওই ব্যক্তির পোস্ট এরপর থেকে নিউজ ফিডে কম দেখাবে।

আনফলো করা : ফেসবুকে কারো ওপর বেশি বিরক্ত? বিরক্তি থাকলেও বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দিতে না চান তবে আনফলো করুন। এতে বন্ধু থাকবেন ঠিকই কিন্তু তার কোনো পোস্ট নিউজফিডে আর দেখবেন না। ওই ব্যক্তির পোস্টে ট্রিপল-ডট বাটন চেপে আনফলো অপশন ঠিক করে দিন। যে তাকে আনফলো করেছেন তা তিনি জানতেও পারবেন না।

ব্লুক বা আনফ্রেন্ড করা : কাউকে বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়াটা কঠিন। কিন্তু অনেক সময় এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়ার দরকার পড়ে। যদি ফেসবুকে কাউকে বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দিতে চান তাদের প্রোফাইল পেজে যান সেখানে ছোট ডাউন অ্যারো বাটন চেপে ব্লুক করে দিন। কাউকে ব্লুক করা হলে তিনি বন্ধু তালিকা থেকে বাদ চলে যাবেন। ফলে তার কোনো পোস্ট দেখবেন না। কোনো পোস্টে আপনাকে ট্যাগ করতে পারবেন না। ব্লুক করা হলে ওই বন্ধুর কাছে নোটিফিকেশন যাবে না। তবে তার বন্ধু তালিকায় আপনাকে আর দেখাবে না।

অভিযোগ দিন : অনেক সময় আপত্তিকর পোস্টে আপনার নিউজ ফিড ভরে যেতে পারে। এ ধরনের পোস্টের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অভিযোগ জানাতে পারেন। ওই পোস্টের পাশে ট্রিপল ডট চেপে গিভ ফিডব্যাক অন দিস পোস্টে যেতে পারেন। সেখানে পোস্ট সম্পর্কে আপনার বক্তব্য জানাতে পারবেন। ফেসবুকের পক্ষ থেকে ওই পোস্ট কেন আপত্তিকর তার কতগুলো অপশন দেখানো হবে। এর মধ্যে রয়েছে ভায়োলেন্স, হ্যারাসমেন্ট, সুইসাইড বা সেলফ ইনজুরি, হেট স্পিচ বা অন্য। ফেসবুকের পক্ষ থেকে অভিযোগ পর্যালোচনা করে দেখা হয়। ফেসবুকের কমিউনিটি মানের সঙ্গে না গেলে তা সরিয়ে ফেলা হয়। অভিযোগদাতার নাম ও তথ্য গোপন রাখে ফেসবুক। হ ডটনেট ডেস্ক

ডট নেট'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj