‘শিশুদের ভালোবাসা নিয়ে পথ চলতে চায় দুরন্ত’

শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯

শুরু থেকেই আমরা চেষ্টা করেছি শিশু-কিশোরদের মননশীল এবং সৃজনশীল বিকাশে যেন চ্যানেলটির ভূমিকা থাকে। আমাদের অনুষ্ঠানগুলোও সেভাবেই সাজাতে চেষ্টা করেছি। শিশুরা যেন রাত জেগে টিভি না দেখে, সেজন্য আমরা রাত ৯টায় প্রচার করছি ‘গল্প শেষে ঘুমের দেশে’ নামের একটি অনুষ্ঠান। অনেক অভিভাবক আমাদের জানিয়েছেন, তাদের সন্তান এই অনুষ্ঠানটি দেখতে দেখতে ঘুমিয়ে পড়ে। এটা আমাদের প্রাপ্তির জায়গা। সকালে আমরা জাতীয় সংগীত সম্প্রচারের মাধ্যমে দিনের কার্যক্রম শুরু করি। এ ছাড়া মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক অনুষ্ঠান, দেশীয় শিল্প-সংস্কৃতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ অনুষ্ঠান প্রচারের মাধ্যমে শিশুদের মাঝে মানবতাবোধ, দেশপ্রেম জাগিয়ে তোলার কাজটি করছি। অভিভাবকরা আমাদের অনুষ্ঠানগুলো পছন্দ করছেন। তারা সন্তানদের টিভিতে এই অনুষ্ঠানগুলো দেখতে উৎসাহ দিচ্ছেন। এটাই আমাদের প্রাপ্তি। শিশুদের ভালোবাসা নিয়েই পথ চলতে চায় দুরন্ত। এখন সারাদেশেই দুরন্ত টিভি দেখা যাচ্ছে। তবে বিদেশে সম্প্রচার করছি না। গত ৫ অক্টোবর থেকে ইউটিউবে যুক্ত হয়েছি। সেখানেও দুরন্ত টিভির অনুষ্ঠানগুলো

দেখা যাচ্ছে।

মোহাম্মদ আলী হায়দার

অনুষ্ঠান প্রধান, দুরন্ত টেলিভিশন

মেলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj