লোহাগড়ায় নালায় শিশুর লাশ, আটক বাবা-মামা

শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : নড়াইলের লোহাগড়া পৌর এলাকার সিঙ্গা গ্রামে রমজান (৬) নামে এক শিশুকে হত্যা করা হয়েছে। গত বুধবার বিকেলে ওই গ্রামের একটি বাগানের পাশে নালায় তার লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শিশুটির বাবা ইলু শেখ ও মামা ইউছুফ শেখকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও পরিবারের সদস্যরা জানান, শিশুটি সিঙ্গা-মশাঘুনি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণিতে পড়ত। বুধবার সকালে স্কুলে গিয়ে আর ফিরে আসেনি। খোঁজাখুঁজির একপর্যায় বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে তার লাশ পাওয়া যায়। শিশুটির মা মারিয়ার সঙ্গে বিবাহিত ইলু শেখের অবৈধ সম্পর্কের জেরে মারিয়া অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে সামাজিক চাপে মারিয়াকে বিয়ে করেন ইলু শেখ। কিন্তু কিছুদিন পর মারিয়াকে তালাক দেন ইলু শেখ। মারিয়া ও রমজানের ভরণপোষণের দাবি করে মারিয়ার পরিবার আদালতে মামলা করে। এ জন্য প্রতি মাসে টাকা দিতে হতো ইলু শেখকে। তিন বছর আগে মারিয়া মারা যায়। গত কয়েক মাস টাকা বাকি থাকায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় কারাগারেও যেতে হয় ইলু শেখকে। রমজানের খালা লাকি বেগম জানান, বাকি টাকার জন্য ইলু শেখকে মাঝেমধ্যে চাপ দেয়া হতো। এই টাকা এবং সম্পত্তি থেকে রমজানকে বঞ্চিত করার জন্য ইলুর প্রথম স্ত্রী তহমিনা বেগম তাকে হত্যা করে বাড়ির পাশে বাগানের গর্তে ফেলে রাখে।

লোহাগড়া থানার এসআই সাইফুল জানান, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট করা হয়েছে। তার শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে এবং শ^াসরোধ করে তাকে হত্যা করা হয়েছে।

লোহাগড়া থানার ওসি মো. মোকাররম হোসেন বলেন, উভয় পরিবার সন্দেহের তালিকায় আছে। শ^াসরোধ করে শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য গতকাল বৃহস্পতিবার সদর হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে শিশুটির বাবা ইলু শেখ ও মামা ইউছুফ শেখকে আটক করা হয়েছে। তবে পলাতক থাকায় সৎ মা তহমিনাকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj