বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় সঠিক পদক্ষেপ জরুরি

বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯

সাঈদ চৌধুরী

ময়লা বাণিজ্য নিয়ে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়েছে স¤প্রতি একটি পত্রিকার লিড নিউজে। সংবাদটিতে ময়লা নিয়ে যারা বাণিজ্য করছে তাদের ব্যাপারে কথা বলা হয়েছে আর বাড়তি কত টাকা এখান থেকে হাতিয়ে নিয়েছে সে ব্যাপারে আলোকপাত করা হয়েছে। ৪৫০ কোটি টাকা ময়লা নিয়ে বাণিজ্য করে যারা নিয়ে যাচ্ছে তারা কি আদৌ শুধু ৪৫০ কোটি টাকার দায়ই নেবে না কি আরো অনেক অনেক বেশি।

টেকসই উন্নয়ন আর এসডিজির গোলের কথা বারবার বলা হয়, তা কখনই সম্ভব নয় যতক্ষণ না পর্যন্ত এই বর্জ্য সঠিকভাবে ব্যবস্থাপনা না করা হবে! বর্জ্যরে অব্যবস্থাপনার কারণে যে ঝুঁকি বাড়ছে তার যদি হিসাব কষা হয় তবে সে টাকায় আরেকটা সুস্থ নগর গড়ে তোলা সম্ভব হবে। ভূগর্ভস্থ পানি, নদীদূষণ, খালগুলো ভরাট, মিথেনসহ অন্যান্য ক্ষতিকর গ্যাসের বৃদ্ধি, বায়ুদূষণসহ মানসিক স্বাস্থ্যের বিকৃতি ঘটার জন্যও দায়ী এই বর্জ্যরে অব্যবস্থাপনা। একসময় নাইট্রোজেন চক্রের সঠিক ক্রিয়াকলাপেও বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে এবং তা শুরুও হয়ে গিয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বর্জ্য ফেলার স্থানের আশপাশের ইকো সিস্টেমও।

গাজীপুরের শ্রীপুরের গড়গড়িয়া মাস্টার বাড়ির রাস্তার পাশে যেখানে ময়লা ফেলা হচ্ছে সেখানকার উদাহরণ দিতে গেলে দেখা যায় চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জলজ প্রাণী, কৃষি জমি, বৃক্ষ, পশু-পাখি ও মানব স্বাস্থ্য। ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে এমন ময়লার ভাগাড়েও যখন কারো সুদৃষ্টি পড়েনি বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সেখানে সারাদেশেই ময়লার এমন অব্যবস্থাপনা!

টেকসই উন্নয়নে নগর পরিকল্পনাবিদরা কী ভাবছেন আর কী হচ্ছে এ বিষয়টিই হচ্ছে সবচেয়ে আক্ষেপের। আমরা কতটুকু করতে পারি? একজন সাধারণ মানুষ হিসেবে দেশের প্রতি দায়িত্ব নিয়ে বারবার বলে যাওয়ার পরও ময়লা দূষণের প্রধান মাধ্যম হয়েই থেকে যাচ্ছে।

বর্জ্য ব্যবস্থাপনার বিষয়ে সঠিক পদক্ষেপ নিতে হবে এখন থেকেই। বিশেষ করে বর্জ্যকে অর্থনৈতিক সম্পদে রূপান্তর না করতে পারলে আমাদের সামনের দিনগুলোতে যে হুমকিগুলো মোকাবেলা করতে হবে তা আমাদের ভবিষ্যতের জন্য বড় বিপদ বয়ে আনবে।

পরিবেশ অধিদপ্তর, সিটি করপোরেশন ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনার সঙ্গে সংশ্লিষ্টজনদের একসঙ্গে কাজ করতে হবে। যদি সঠিক পরিকল্পনা অনুযায়ী না এগোনো যায় তবে বর্জ্যরে অব্যস্থাপনা নিয়ে আমাদের হতাশা কখনই কাটবে না।

:: শ্রীপুর, গাজীপুর।

মুক্তচিন্তা'র আরও সংবাদ
আ ব ম খোরশিদ আলম খান

ঘরে বসে তারাবিহ্র নামাজ পড়ুন

ড. এম জি. নিয়োগী

ধান ব্যাংক

মযহারুল ইসলাম বাবলা

করোনার নির্মমতার ভেতর-বাহির

অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান চৌধুরী

শিক্ষা খাতে প্রণোদনা প্যাকেজ প্রয়োজন

মমতাজউদ্দীন পাটোয়ারী

করোনা যুদ্ধে জয়ী হওয়া

অধ্যাপক ড. অরূপরতন চৌধুরী

করোনা ভাইরাস এবং আমাদের যতœ

Bhorerkagoj