সুনামগঞ্জে নৌকাডুবি : ৯ জনের মরদেহ উদ্ধার

বৃহস্পতিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কালিয়াকুটা হাওরে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় যাত্রীবাহী নৌকাডুবির ঘটনায় এ পর্যন্ত ৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিখোঁজ রয়েছেন একজন। বৈরী আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার কাজ বিলম্বিত হচ্ছে। গতকাল বুধবার সকালে হাওর থেকে ভাসমান অবস্থায় আরো ৫ জনের মরদেহ উদ্ধার হওয়ার মধ্য দিয়ে এ ঘটনায় ৯ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হলো।

গতকাল উপজেলার রফিনগর ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রামের রইতনু নেছা (৩৫), একই গ্রামের শান্তা বেগম (৪), চরনাচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামের করিমা বেগম (৬২) ও নোয়ার চর গ্রামের আসাদ মিয়া (৬) ও আজিজুননেছার (২৫) মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের শামিম (২), আবির (৩), নোয়ারচর গ্রামের সোহান(২) ও আজম (২) এর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নৌকার আরো ১৫ জন যাত্রী সাঁতরে তীরে উঠতে পারলেও নারী ও শিশুরা উঠতে পারেনি। এ ঘটনায় ১ জন নিখোঁজ রয়েছে এবং তাকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে তবে বৃষ্টি ও হাওরে ঢেউয়ের কারণে উদ্ধার কার্যক্রমে বিঘ্ন ঘটছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার রফিনগর ইউনিয়নের মাছিমপুর থেকে একটি যাত্রীবাহী নৌকা ২৫ থেকে ৩০ জন যাত্রী নিয়ে উপজেলার চরনাচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামে যাচ্ছিল। পথে রফিনগর ইউনিয়নের কালিয়াকুটা হাওরে দমকা বাতাসে নৌকাটি ডুবে যায়।

দিরাই থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেএম নজরুল ইসলাম জানান, পুলিশ ও স্থানীয়দের নিয়ে উদ্ধার কাজ চলছে।

দিরাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মঞ্জুর আলম চৌধুরী জানিয়েছেন, উপজেলা প্রশাসন থেকে নৌকাডুবিতে যারা মারা গেছেন তাদের সহায়তা দেয়া হবে।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj