সুপার ওভার নিয়মে পরিবর্তন

বুধবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

খেলা ডেস্ক : ইংল্যান্ডের মাটিতে অনুষ্ঠিত বিশ^কাপের ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে সুপার ওভারে হারিয়ে বিশ^কাপ জেতে ইংল্যান্ড। তবে সেই ম্যাচটিতে ইংল্যান্ডকে অনেকেই চ্যাম্পিয়ন মানতে চান না। কারণ সুপার ওভারের ফলাফলও যে টাই হয়েছিল। সুপার ওভার টাই হওয়ার পর অদ্ভুদ বাউন্ডারি আইনে বিশ^কাপ জেতে ইংল্যান্ড। অদ্ভুদ নিয়মটি হলো- সুপার ওভারের খেলা টাই হলে যে দল ম্যাচে সবচেয়ে বেশি বাউন্ডারি হাঁকাবে সেই দল ম্যাচটি জিতবে। ফাইনাল ম্যাচের পর এমন নিয়মের বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনা হয়। এই নিয়ম পরিবর্তনের দাবি তোলেন তারা। ক্রিকেট বিশ^ এর আগে এমন ঘটনা দেখেনি। তাই এটির ফলাফল নিয়ে কারো কোনো ধারণা ছিল না।

অবশেষে সেই সুপার ওভারের নিয়মে পরিবর্তন আনতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। আগামী ডিসেম্বরের ১৭ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে বিগ ব্যাশের নবম মৌসুম। বিগ ব্যাশ থেকেই সুপার ওভারের এই অদ্ভুদ নিয়ম বাতিল করা হবে। তবে আইসিসি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এ নিয়ম বাতিল করবে কিনা তা জানা যায়নি।

বিগ ব্যাশের চেয়ারম্যান অ্যালিস্টার ডবসন গতকাল পরিবর্তনের ব্যাপারটি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, বিশ^কাপের ফাইনালের পর পুরো ক্রিকেট বিশে^ই বাউন্ডারি কাউন্ট সিস্টেম অনেক বেশি বেশি আলোচিত এবং সমালোচিত বিষয়। এমনকি নারী বিগ ব্যাশে লিগ ০৪-এর সেমিফাইনালে সিডনি সিক্সার্স এবং মেলবোর্ন রেনেগার্ডসের মধ্যেকার ম্যাচটি আমাদের এবং সমর্থকদের বাউন্ডারি কাউন্ট সিস্টেম সম্পর্কে একটা বাজে ধারণা তৈরি করে দিয়ে গেছে।

সুপার ওভারের ওই নিয়ম পরিবর্তন করার ফলে এখন থেকে বিগ ব্যাশে যদি কোনো ম্যাচ টাই হয় তাহলে আবার সুপার ওভার হবে। এমনভাবে ফলাফল বের না হওয়া পর্যন্ত তা চলতেই থাকবে।

ইংল্যান্ড বনাম নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার বিশ^কাপের ফাইনাল ম্যাচটি শতাব্দীর সেরা ফাইনাল ম্যাচ হিসেবে গণ্য করা হয়। কিন্তু সেই একটি ঘটনার জন্য অনেকেই এটি নিউজিল্যান্ডের ওপর অন্যায় করা হয়েছে বলে মনে করেন।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj