সেই নারীকে খুঁজে পেলেন রোনালদো

মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

হালের ফুটবল সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো উঠে এসেছেন পর্তুগালের গরিব এক পরিবার থেকে। এখন অর্থেবিত্তে পৃথিবীর অন্যতম ধনী ব্যক্তি তিনি। তার দেখা পেতে মুখিয়ে থাকে কোটি কোটি ফুটবলপ্রেমী। তবে বর্তমানে এমন রাজকীয় জীবনযাপন করলেও নিজের অতীতকে কখনো ভুলে যান না রোনালদো। প্রায়ই জানান কেমন ছিল তার ছোটবেলার দিনগুলো।

তেমনই সম্প্রতি নিজের অতীত জীবনের একটি ঘটনা সবার সামনে খোলাসা করেছেন রোনালদো। ব্রিটিশ টেলিভিশন চ্যানেল আইটিভির একটি অনুষ্ঠানের সাক্ষাৎকারে রোনালদো জানান তার বয়স যখন ১২ বছর ছিল তখন পর্তুগালের স্পোর্টিং লিসবন স্টেডিয়ামের কাছে ম্যাকডোনাল্ডসের একটি দোকানের কর্মীরা তাকে ফ্রিতে বার্গার খেতে দিত। রোনালদো বলেন, আমরা খেলা শেষে প্রায়ই ক্ষুদার্ত থাকতাম। স্টেডিয়ামের পাশেই ম্যাকাডোনাল্ডসের একটি দোকান ছিল। খেলা শেষে ওই দোকানের দরজায় নক করতাম কোনো ফ্রি বার্গার আছে কিনা। সেই দোকানের কর্মীরা খুবই ভালো ছিল। আমাদের প্রায়ই বার্গার খেতে দিত। বিশেষ করে এডনা ও আরো দুজন মহিলা। তারা খুবই অমায়িক ছিল। রোনালদো আরো বলেন, আমি তাদের খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করেছি। দুবার পর্তুগালে গিয়ে তাদের খোঁজ পাওয়ার চেষ্টা করেছি। কিন্তু পাইনি। এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আমি তাদের খুঁজে পেতে চাই। তাদের সঙ্গে নিয়ে লিসবন বা তুরিনে একসঙ্গে একদিন ডিনার করতে চাই।

রোনালদোর এমন চাওয়ার পর পর্তুগালে সাড়া পড়ে যায় ফ্রি বার্গার খাওয়ানো সেই নারীদের খোঁজে। তিনি সাক্ষাৎকারে যে এডনার কথা বলেছিলেন সেই এডনাকে অবশেষে খুঁজে পেয়েছেন তিনি। খেলাধুলা বিষয়ক পর্তুগিজ সংবাদ মাধ্যম ‘রেকর্ড’-এ নিজের পরিচয় দিয়েছেন এডনা। এডনা বলেন, আমি আসলে কোনোদিন ভাবতেও পারিনি রোনালদো আমাকে মনে রাখবে।

:: মোহাম্মদ তানভীরুল ইসলাম

গ্যালারি'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj