আবু হেনা মোস্তফা কামাল

সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

আবু হেনা মোস্তফা কামাল (জন্ম ১২ মার্চ, ১৯৩৬; মৃত্যু ২৩ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৯) শিক্ষাবিদ, সাহিত্যিক, গীতিকার, গবেষক। আবু হেনা পাবনা জেলার উল্লাপাড়ার গোবিন্দা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি পাবনা জেলা স্কুল থেকে ম্যাট্রিক, ঢাকা কলেজ থেকে আইএ পাস করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বাংলা বিভাগ থেকে অনার্সসহ বিএ এবং এমএ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। পঞ্চাশের দশকে ঢাকাকে কেন্দ্র করে সাহিত্য ও সংস্কৃতির যে নতুন ভুবন তৈরি হচ্ছিল, আবু হেনা ছিলেন সে পরিবৃত্তের তরুণ সদস্যদের একজন। ছাত্রাবস্থা থেকেই তিনি সংস্কৃতিসেবী হিসেবে সুনাম অর্জন করেন। তরুণ বয়সে কবি ও গীতিকাররূপে তার সফল আত্মপ্রকাশ ঘটে। তিনি ঢাকা বেতারের নিয়মিত শিল্পী ছিলেন। অন্তরঙ্গ অনুভব, গাঢ় আবেগ, রোমান্টিক আর্তি এবং কখনো কখনো স্বদেশবোধের শিল্পিত পরিচর্যা তার কবিতা ও গানগুলোকে বিশিষ্টতা দিয়েছে। তিনি একই সঙ্গে কবি ও গীতিকার হিসেবে খ্যাতি লাভ করেন। তিনি ছিলেন বাংলা গানের এক উজ্জ্বল বাণীকার, টেলিভিশনের বাককুশল রসিক উপস্থাপক ও আলোচক। গদ্যচর্চায় আবু হেনার সৃষ্টিশীলতার নিদর্শন রয়েছে। সাহিত্যপাঠের ব্যাপকতা, সাহিত্যবোধের রসঘনতা এবং ভাষাপরিচর্যা তার গদ্য রচনায় স্বতন্ত্র স্বাদ সৃষ্টি করেছে। প্রবন্ধ, গবেষণাধর্মী লেখা, সমালোচনা, ভাষ্য- সব ধরনের গদ্য রচনার বক্তব্য, ভাষা, উপস্থাপনা ও ভঙ্গিতে তার স্বকীয়তা সুস্পষ্ট। আবু হেনা বাংলা সাহিত্য ও বিশিষ্ট সাহিত্যিকদের মূল্যায়ন করে কিছু উল্লেখযোগ্য প্রবন্ধ লিখেছেন এবং সেগুলো তার শিল্পীর রূপান্তর এবং কথা ও কবিতা নামের দুটি প্রবন্ধ-সংকলনে স্থান পেয়েছে। আবু হেনার তিনটি কাব্যগ্রন্থ আপন যৌবন বৈরী, যেহেতু জন্মান্ধ ও আক্রান্ত গজল এবং আমি সাগরের নীল তার গানের সংকলন। আবু হেনা মোস্তফা কামালের ইংরেজিতে লেখা গবেষণাগ্রন্থটি হলো ঞযব ইবহমধষর চৎবংং ধহফ খরঃবৎধৎু ডৎরঃরহম. এটি উনিশ শতকের কলকাতায় বাংলা সাময়িকপত্রে প্রকাশিত সাহিত্যবিষয়ক রচনা সম্পর্কে গবেষণামূলক আলোচনা। তিনি একসময় সাময়িক পত্রিকায় সাহিত্য ও সংস্কৃতিবিষয়ক সরস কলাম লিখে প্রশংসিত হন। সাহিত্য ও সংস্কৃতিতে বিশেষ অবদানের জন্য তিনি আলাওল সাহিত্য পুরস্কার, একুশের পদক, আব্দুল করিম সাহিত্যবিশারদ স্বর্ণপদক, সাদত আলী আকন্দ স্মৃতি পুরস্কারে ভূষিত হন। ১৯৮৯ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

মুক্তচিন্তা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj