টুকি-টাকি

শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মাথায় ঢোকে না কোনো হেলমেট : জরিমানা করল না পুলিশ

কাগজ ডেস্ক : ভারতের গুজরাট প্রদেশের যুবক জাকির হোসেন। ইচ্ছা থাকলেও ট্রাফিক আইন মানতে পারছেন না তিনি! কারণ জাকিরের মাথা এতটাই মোটা যে তার মাপের হেলমেট বাজারে খুঁজে পাওয়া যায় না। ভারতীয় একটি দৈনিক বলছে, গুজরাটের উদয়পুরের বাসিন্দা জাকির পেশায় ফল ব্যবসায়ী। কয়েকদিন আগে হেলমেট ছাড়া বাইক চালাতে গিয়ে ধরা পড়েন তিনি। ট্রাফিক পুলিশ নিয়ম মেনে তাকে জরিমানা করে। দেশটির নতুন মোটরযান আইন অনুযায়ী মোটা অঙ্কের জরিমানা হয় জাকিরের। জরিমানার রসিদ হাতে পাওয়ার পর জাকির পুলিশকে জানান, তিনি চাইলেও ট্রাফিক আইন মানতে পারছেন না। কারণ তার মাথাটা এতটাই মোটা যে বাজারে কোনো হেলমেট তার মাপে পাওয়া যায়নি। জাকির বলেন, আমার কাছে সব বৈধ কাগজপত্র রয়েছে। শুধু হেলমেট নেই। আমি অনেক দোকানে গিয়েছি। কিন্তু কোথাও আমার মাপের হেলমেট পাইনি। আইন মেনে চলাটাই কাজ, সবাই সেটাই করতে চায়।

সাবেক প্রেমিকের চিঠি পোড়াতে গিয়ে বাড়িতে আগুন

কাগজ ডেস্ক : কিছুদিন আগেই ব্রেক-আপ হয়েছে হয়েছে দু’জনের। রাগে প্রাক্তন প্রেমিকের দেয়া কোনো জিনিসই আর ঘরে রাখতে চাননি তরুণী। তাই সাবেক প্রেমিকের কাছে পাওয়া সব উপহারের পাশাপাশি তাকে দেয়া প্রেমপত্রগুলোও পুড়িয়ে ফেলতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু এমনটা করতে গিয়ে নিজের বিপদ নিজেই ডেকে এনেছেন ওই তরুণী। প্রেমিকের লেখা সব চিঠি আগুনে পোড়াতে গিয়ে পুরো বাড়িতেই আগুন ধরে গেছে। খুব দ্রুত চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে আগুন। এ ঘটনায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া না গেলেও মোট চার হাজার ডলারের সম্পত্তি নষ্ট হয়েছে বলে জানা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রের নেব্রাস্কার বাসিন্দা ওই তরুণীর রাগের কারণে ক্ষতি হয়েছে প্রতিবেশীদেরও।

ছাগলের সঙ্গে যোগব্যায়াম করে বিশ্বরেকর্ড

কাগজ ডেস্ক : ছাগলের সঙ্গে যোগব্যায়ামের আয়োজন করে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম তুলতে চলেছে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের একটি খামার। খামারটির নাম গ্রেডি গোট ফার্ম। খামারের মালিক দম্পতি এমন দাবি করেছেন। যদিও তাদের দাবি, রেকর্ড ইতোমধ্যেই হয়ে গেছে। সব তথ্য খতিয়ে দেখে এখন শুধু প্রশংসাপত্র পাওয়ার অপেক্ষা। গত শনিবার এই যোগাভ্যাসের আয়োজন করা হয়। স্থানীয় মার্কিন গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে। ছাগলের সঙ্গে যোগ ব্যায়াম করার পদ্ধতির নাম দেয়া হয়েছে ‘গোট ইয়োগা’। একটু উঁচু জায়গায় উঠে দাঁড়ানো ছাগলের সাধারণ প্রবৃত্তি। যখন যোগব্যায়ামের অংশগ্রহণকারীরা যোগাভ্যাস করবেন তখন তাদের আশপাশেই ঘুরে বেড়াবে এই ছাগলগুলো। যোগাভ্যাস করার সময় তারা এমন শারীরিক অবস্থান নেবেন যাতে করে ছাগলগুলোর পক্ষে তাদের গায়ে ওঠা সম্ভব হয়। আর তেমন সুযোগ পাওয়ার পর ছাগলগুলো তাদের গায়ে উঠে পড়বে। আর এতে বিরক্ত না হয়ে যোগব্যায়ামে অংশগ্রহণকারীরা তাদের সঙ্গে নিয়েই কাজ চালিয়ে যাবেন।

ভাঙা কাচ খেয়ে ৪০ বছর পার

কাগজ ডেস্ক : মজা করার জন্য অনেকেই অনেক ধরনের কাজ করে থাকেন। তাই বলে দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে কাচ খাওয়ার কথা বোধহয় ভাবতে পারেন না কেউ। ভারতের মধ্যপ্রদেশে এরকম একটি ঘটনা ঘটেছে। এক আইনজীবী ৪০ বছর ধরে ভাঙা কাচের টুকরো খাচ্ছেন। মধ্যপ্রদেশের দিনদোরি জেলার বাসিন্দা ওই আইনজীবীর নাম দয়ারাম সাহু।

এমন অভ্যাস খারাপ বলে মানলেও তিনি জানালেন গত চার দশকের বেশি সময় ধরে এটাই তার একমাত্র নেশা। এমন নেশার কারণে তার দাঁতের পাশাপাশি শরীরের ওপরেও প্রভাব পড়ছে। ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআইকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, গত ৪০ বছর ধরে এটাই তার নেশা।

কাচ খাওয়ার জন্য তার দাঁতের খুব ক্ষতি হচ্ছে। আগে অনেক বেশি কাচ খেলেও এখন কমিয়ে দিয়েছেন। নেশার জন্য তিনি নিজে কাচ খেলেও বাকিদের অবশ্য তা করতে বারণ করেছেন। নিছক মজার ছলেই ও আগ্রহবশত তার এই নেশার শুরু।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj