জেনে নিন : উদ্ভাবনী ফিচারের রেফ্রিজারেটর

রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

উদ্ভাবনী নতুন নতুন প্রযুক্তি মানুষের যাপিতজীবনের পথচলা করেছে সহজ। ব্যস্ত জীবনে সাধ্যের মধ্যে তাই বেড়েছে প্রযুক্তি পণ্যের ক্রয় এবং ব্যবহারও। ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য সামগ্রীও রয়েছে এই তালিকায়। আমাদের নিত্য দিনের পথচলা যেসব ইলেক্ট্রনিক্স পণ্যগুলো সহজ করেছে তার মধ্যে অন্যতম রেফ্রিজারেটর। এই অতি গুরুত্বপূর্ণ পণ্যটিরও রয়েছে বিভিন্ন ক্যাটাগরি। আগে বাসা-বাড়িতে খুব সাদামাটা ধরনের রেফ্রিজারেটর দেখা যেত। কিন্তু পরিবর্তনের এই যুগে রেফ্রিজারেটরের ধরনেও এসেছে পরিবর্তন। এখন মানুষ বাসায় নিয়ে আসছে উদ্ভাবনী প্রযুক্তির রেফ্রিজারেটর। এগুলোর মধ্যে রয়েছে সাইড বাই সাইড, ডিপ ফ্রিজার, ডিরেক্ট কুল, নো ফ্রস্ট ইত্যাদি।

বাংলাদেশের বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের রেফ্রিজারেটর পাওয়া যাচ্ছ। তবে বিভিন্ন ক্যাটাগরির ৩০ টি মডেলের রেফ্রিজারেটর নিয়ে একধাপ এগিয়ে আছে কনজ্যুমার ইলেক্ট্রনিক্স ব্র্যান্ড স্যামসাং ইলেক্ট্রনিক্স বাংলাদেশ। প্রতিনিয়ত উদ্ভাবনী প্রযুক্তিসম্পন্ন রেফ্রিজারেটর নিয়ে হাজির হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। স¤প্রতি তাদের ঝুলিতে সংযোজন হয়েছে উদ্ভাবনী প্রযুক্তি সম্পন্ন সাইড বাই সাইড রেফ্রিজারেটর। টু- ডোর এবং থ্রি-ডোর বিশিষ্ট স্পেসম্যাক্স সিরিজের সাইড-বাই-সাইড রেফ্রিজারেটরগুলো স¤প্রতি বাংলাদেশের বাজারে এসেছে।

এই রেফ্রিজারেটরগুলোর রয়েছে অনন্য কিছু বৈশিষ্ট্য। এই যেমন সাইড বাই সাইড রেফ্রিজারেটর গুলোতে রয়েছে তুলনামূলক বেশি স্পেস। কেননা নতুন এই রেফ্রিজারেটরগুলোতে ব্যবহার করা হয়েছে স্পেসম্যাক্স প্রযুক্তি। যার ফলে রেফ্রিজারেটরের আকারের তুলনায় এর ভেতরে খাবার সংরক্ষণের জন্য বেশি জায়গা পাওয়া যায় এবং তুলনামূলক কম বিদ্যুৎশক্তি ব্যবহার করে। এছাড়াও ভিন্নভাবে ডিজাইন করা রেফ্রিজারেটরগুলো ক্রেতাদের খাবার সংরক্ষণের ধারণা বদলে দিবে। এই সিরিজের রেফ্রিজারেটরের ‘অলএরাউন্ড’ কুলিং সিস্টেম রয়েছে যার ফলে ঠান্ডা বাতাস বের হওয়ার বহু নির্গমন পথ রয়েছে। যা পুরো রেফ্রিজারেটরকে ঠান্ডা রাখে এবং দীর্ঘ সময় খাবার তাজা রাখতে সর্বোত্তম তাপমাত্রা বজায় রাখে। রেফ্রিজারেটরগুলোতে ব্যবহার করা হয়েছে স্যামসাং ডিজিটাল ইনভার্টার কমপ্রেসর যা ৫০% পর্যন্ত বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী। নতুন সিরিজের এই রেফ্রিজারেটরগুলোতে রয়েছে পাওয়ার কুল এবং পাওয়ার ফ্রিজ। পাওয়ার কুল বাটন চাপার সঙ্গে সঙ্গেই ঠান্ডা বাতাস দ্রুত ঠান্ডা পানি এবং আনুষঙ্গিক অন্যান্য খাদ্যদ্রব্য। বাজারে এধরনের কয়েকটি রেফ্রিজারেটর পাওয়া যাবে ১ লক্ষ ৫৯ হাজার ৯০০ টাকা থেকে ১ লক্ষ ৮৯ হাজার ৯০০ টাকা।

:: ফ্যাশন ডেস্ক

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj