জিরো কনট্রাস্ট অ্যানজিওপ্লাস্টি : ডা. আফজালুর রহমানের প্রথম সাফল্য

মঙ্গলবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে ৩০ জুলাই জিরো-কনট্রাস্ট অ্যানজিওপ্লাস্টি করা হয়েছে। ইনস্টিটিউটের বর্তমান পরিচালক অধ্যাপক ডা. আফজালুর রহমান দেশে প্রথমবারের মতো এ পদ্ধতিতে একজন জটিল হৃদরোগীর হৃদযন্ত্রের রক্তনালিতে রিং বা স্টেন্ট পরান।

দক্ষিণ এশিয়াতেও ইতোপূর্বে এ প্রযুক্তির ব্যবহার হয়নি। কাজেই ডা. আফজালুর রহমান প্রথমবারের মতো জিরো-কনট্রাস্ট অ্যানজিওপ্লাস্টি করে বাংলাদেশ তথা দক্ষিণ এশিয়ায় হৃদরোগ চিকিৎসায় নবযুগের সূচনা করলেন।

করোনারি হৃদরোগের আধুনিক চিকিৎসায় হৃদযন্ত্রের বন্ধ হয়ে যাওয়া রক্তনালি বেলুন ফুলিয়ে খুলে দেয়া হয়। আর এ কাজে প্রচলিত পদ্ধতির অ্যানজিওপ্লাস্টিতে আয়োডিন-নির্ভর কনট্রাস্ট বা ডাই ব্যবহার করতে হয়। এই কনট্রাস্ট বা ডাইগুলো কাজ শেষে কিডনি দিয়ে শরীর থেকে বের হয়ে যায়। ফলে সাধারণ হৃদরোগীদের ক্ষেত্রে কিডনির তেমন কোনো অসুবিধা হয় না। কিন্তু যে সব হৃদরোগীর একই সঙ্গে কিডনি রোগও আছে, তাদের জন্য ডাইগুলো সহজে শরীর থেকে বের না হয়ে কিডনি বিকল করে দিতে পারে। পৃথিবীব্যাপী হৃদরোগ বিশেষজ্ঞরা দীর্ঘদিন ধরে এর উপযুক্ত সমাধান খুঁজছেন।

জিরো-কনট্রাস্ট অ্যানজিওপ্লাস্টি আয়োডিননির্ভর কনট্রাস্ট ব্যবহারজনিত কিডনির ঝুঁকি পরিহারে নতুন আশার সঞ্চার করেছে। বিজ্ঞপ্তি।

অধুনা প্রবর্তিত এ পদ্ধতিতে প্রচলিত পদ্ধতির অ্যানজিওপ্লাস্টির মতো ক্ষতিকর আয়োডিননির্ভর যৌগ ব্যবহার করতে হয় না বললেই চলে।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj