পর্তুগাল-ফ্রান্স জয় পেল

সোমবার, ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

খেলা ডেস্ক : ইউরো ২০২০ বাছাই পর্বের গতকালের ম্যাচে জয় পেয়েছে ফ্রান্স, ইংল্যান্ড ও পর্তুগালের মতো বড় দলগুলো। এ দিন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল ৪-২ গোলে হারিয়েছে সার্বিয়াকে। ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচটিতে পর্তুগালের হয়ে গোল করেন উইলিয়াম কারভালহো, গঞ্জালো গুয়েডেস, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও বার্নারদো সিলভা। এটি গ্রুপ পর্বে পর্তুগালের প্রথম জয়। টুর্নামেন্টটির ডিপেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা তাদের আগের দুটি ম্যাচ ড্র করেছে।

অন্যদিকে ‘এইচ’ গ্রুপের ম্যাচে আলবেনিয়াকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে বর্তমান বিশ^চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। ইনজুরির কারণে দলের বাইরে রয়েছেন পল পগবা। তবে এতে কোনো সমস্যা হয়নি বিশ^কাপজয়ীদের। অনায়েসেই ম্যাচটি নিজেদের করে নিয়েছে লেস বেøউসরা। ম্যাচে ফ্রান্সের হয়ে জোড়া গোল করেছেন কিংসলে কোম্যান। এ ছাড়া অলিভার জিরার্ড ও ন্যানিটামো ইকোনে একটি করে গোল করেছেন। এটি কোচ দিদিয়ের দেশ্যামের শিষ্যদের টানা দ্বিতীয় জয়।

অন্যদিকে ইংল্যান্ডের জয়রথ ছুটছেই। হ্যারি কেনের দুর্দান্ত হ্যাটট্রিকে এ দিন ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে বুলগেরিয়ার বিপক্ষে ৪-০ গোলের দাপুটে জয় পেয়েছে তারা। ম্যাচে ইংলিশদের হয়ে অপর গোলটি করেন রহিম স্টার্লিং। এটি থ্রি লায়ন্সদের টানা তৃতীয় জয়।

তবে গতকাল রোনালদোর গোল, ইংল্যান্ডের জয় সবকিছু ছাপিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু ছিল ফ্রান্স ও আলবেনিয়ার মধ্যকার ম্যাচটি। গতকাল দুদলের ম্যাচটি শুরুর আগে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার জন্য লাইন বেঁধে দাঁড়ান খেলোয়াড়রা। কিন্তু ভুল করে আলবেনিয়ার জাতীয় সঙ্গীতের বদলে বাজানো হয় আনদোরার জাতীয় সঙ্গীত। এ রকম ভুলে আলবেনিয়ার খেলোয়াড়রা রেগে যান। আলবেনিয়ার সঠিক জাতীয় সঙ্গীত বাজানোর জন্য দাবি করেন তারা। এরপর তাদের দাবি মেনে বাজানো হয় আলবেনিয়ার জাতীয় সঙ্গীত। এর ফলে ম্যাচ মাঠে গড়াতে নির্ধারিত সময়ের পর ১০ মিনিট দেরি হয়। তবে সেখানেই নাটকের শেষ হয়নি। এ রকম ভুলের জন্য ক্ষমা চাইতে যেয়ে আবার আরেক ভুল করে বসেন মাঠের ঘোষণার দায়িত্বে থাকা ব্যক্তি। আলবেনিয়া নামের বদলে আর্মেনিয়া উচ্চারণ করে ক্ষমা চান তিনি।

অন্যদিকে গতকাল বুলগেরিয়ার বিপক্ষে হ্যাট্রিক করার মাধ্যমে ইংলিশ কিংবদন্তি ফুটবলার জিওফ হার্স্টকে টপকে ইংল্যান্ডের ফুটবল ইতিহাসে ১৩তম সর্বোচ্চ গোল করার জায়গা দখল করেছেন অধিনায়ক হ্যারি কেন। এ পর্যন্ত ইংল্যান্ডের হয়ে ৪০ ম্যাচ থেকে ২৫টি গোল করেছেন কেন। আর হার্স্ট সব মিলিয়ে ৪৯ ম্যাচ খেলে ২৪টি গোল করেছিলেন। ১৯৬৬ সালে ইংল্যান্ডের একমাত্র বিশ^কাপ জয়ের নায়ক ছিলেন হার্স্ট। ফাইনাল ম্যাচে উত্তর জার্মানির বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছিলেন তিনি। প্রায় ৫০ বছল আগে গড়া তার বিশ^কাপের ফাইনালে হ্যাটট্রিক করার রেকর্ডটিকে এখনো কেউ ছুঁতে পারেনি।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj