টুকি-টাকি

শনিবার, ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯

৭৩ বছর বয়সে মা, জন্মাল যমজ কন্যা

কাগজ ডেস্ক : ৭৩ বছর বয়সে জীবনে প্রথমবারের মতো মাতৃত্বের স্বাদ পেয়েছেন ভারতীয় এক নারী। একইসঙ্গে যমজ দুই কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে হৈচৈ ফেলে দিয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার ভারতের অন্ধ্র প্রদেশ রাজ্যের মাঙ্গাইয়াম্মা ইয়ারামাতি এ যমজ সন্তানের জন্ম দেন। তার স্বামী সীতারাম রাজারাওয়ের বয়স বর্তমানে ৮২ বছর। জীবনে প্রথম মাতৃত্বের স্বাদ পাওয়া ইয়ারামাতি জানান, সারা জীবন তিনি ও তার স্বামী সন্তান কামনা করেছেন। কিন্তু এর আগ পর্যন্ত তাদের কপালে সন্তান জোটেনি। সন্তানের জন্য আমরা অনেক চেষ্টা করেছি। অনেক ডাক্তার দেখিয়েছি। এটি আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়। সন্তান না হওয়ায় সবসময় সমাজ ও গ্রামের লোকজন ইয়ারামাতিকে ‘অপয়া’ বলে গালমন্দ করত। তাকে একঘরে করে রাখা হতো। এমনকি কোনো উৎসবেও তাকে ডাকা হতো না বলে জানান ইয়ারামাতি। তারা আমাকে বন্ধ্যা বলে ডাকত। বলেন, মা হওয়ার স্বাদ পাওয়া এই নারী। সদ্য বাবা হওয়া সীতারামও এ ঘটনায় দারুণ উচ্ছ¡সিত। প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, এ ঘটনায় আমরা যারপরনাই খুশি। আইভিএফ চিকিৎসা পদ্ধতি অনুসরণের দুই মাসের মধ্যেই ইয়ারামাতি গর্ভধারণ করেন। আইভিএফ বা ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন পদ্ধতিতে প্রথমে মানব দেহের বাইরে শুক্রাণু ও ডিম্বাণু নিষিক্ত করা হয়। পরে তা স্থাপন করা হয় জরায়ুতে। সাধারণত সন্তানহীন দম্পতিরা এ চিকিৎসা পদ্ধতির শরণাপন্ন হন। ওই নারীর চিকিৎসক উমা শঙ্কর জানান, সিজারের মাধ্যমে দুই শিশুর জন্ম হয়েছে। মা ও শিশুরা সুস্থ আছে। এর আগেও ২০১৬ সালে ৭০ বছর বয়সী আরেক ভারতীয় নারী ছেলে সন্তানের জন্ম দেন।

হাতব্যাগে জীবিত নবজাতকসহ নারী আটক

কাগজ ডেস্ক : জেনিফার ট্যালবট নামে যুক্তরাষ্ট্রের এক নারীর হাতব্যাগ থেকে জীবিত এক নবজাতকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলার নিনোয় অ্যাকুইনো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এ ঘটনা ঘটে। নবজাতকটির বয়স ছয়দিনের মতো বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশের অভিযোগ, নবজাতককে পাচারের উদ্দেশ্যে হাতব্যাগে ভরে নিয়ে যাচ্ছিলেন জেনিফার ট্যালবট নামের ওই মার্কিন নারী। এদিকে, ফিলিপাইনের ন্যাশনাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (এনবিআই) দাবি, পাচার নয় নিজেই শিশুটিকে চুরি করে যুক্তরাষ্ট্রে পালাচ্ছিলেন জেনিফার ট্যালবট।

ফিলিপাইন এনবিআইর বিমানবন্দর শাখার প্রধান ম্যানুয়েল দিমানো জানায়, পাচারের অপরাধ প্রমাণ হলে মার্কিন ওই নারীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হতে পারে। বিমানবন্দরে শিশুটির বোর্ডিং পাস দেখাতে পারেননি জেনিফার। তবে শিশুটির মায়ের স্বাক্ষরহীন একটি পত্র পাওয়া যায় তার কাছে। যেখানে লেখা রয়েছে শিশুটিকে যুক্তরাষ্ট্রে নিতে কোনো বাধা দেবেন না এর মা। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, পাচারের অপরাধ প্রমাণ হলে মার্কিন ওই নারীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হতে পারে।

মোরগের ডাক বন্ধে মামলা!

কাগজ ডেস্ক : ফ্রান্সে ‘মরিস’ নামে এক গলাবাজ মোরগের কণ্ঠরোধ করতে আদালতে মামলা ঠুকে দিয়েছেন এক দম্পতি। তবে আদালত তাদের দাবি নাকচ করে দিয়ে বলেছেন, মরিস যখন খুশি গলা ছেড়ে ডাকতে পারবে। তার কণ্ঠরোধ করা যাবে না। ফ্রান্সে আটলান্টিক মহাসাগরের উপক‚লবর্তী ওলেরন দ্বীপে নিয়মিত ছুটি কাটাতে যাওয়া অবসরপ্রাপ্ত এক দম্পতি আদালতে মামলাটি করেছিলেন। তবে মামলায় তারা সফল তো হনইনি, উল্টে আদালত তাদের ক্ষতিপূরণ ও মামলা বাবদ এক হাজার ডলারের বেশি খরচ দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এই মামলা ফ্রান্সে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

যারা নিরিবিলি গ্রামীণ পরিবেশ পছন্দ করেন এবং শহুরে ব্যস্ততা থেকে কিছুটা শান্তির খোঁজে গ্রামে গিয়ে সময় কাটাতে চান, তাদের সঙ্গে গ্রামের প্রাকৃতিক পরিবেশ ধরে রাখার পক্ষে যারা তাদের মধ্যে কয়েক দশকের একটা বিরোধকে সামনে এনেছে ‘মরিস মোরগের’ এই মামলা। মোরগের মালিক করিন ফেসে্যাঁ বলেছেন, মরিসের ডাক নিয়ে কেউই কখনো অভিযোগ করেননি।

দূরের জানালা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj