একজন রমা চৌধুরীর প্রতি

শুক্রবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

জোবায়ের মিলন

নিজের সাথে যুদ্ধ করতে পারে না সবাই…

লোভ, লালসা ও ন্যুব্জতায় ভেঙে পড়তে দেখেছি-

অনেক পাহাড়, দালান, মসৃণ বাগান।

সামান্য মাটির ঘর হয়ে যেভাবে আকাশকে

ফিরিয়ে দিলে শিষ্টাচারে; মৃদু জোছনার সাথে

অনাবৃত পা-এ লিখলে এক পথের কাহিনী

তা তোমাকে নিয়ে গেল অনন্য ভূমিকায়।

শরীরে বেঁচে থাকা মানুষের ধরন এক।

‘অমর প্রাণ’ যারা তারা অন্য রকম

তাদের পাণ্ডুলিপি মাটির গন্ধের মতো-

তোমার সমস্ত জুড়ে সে গন্ধ বিলিকাটে,

সে সোঁদাগন্ধটা মিশে গেল বাতাসের সাথে

অমরত্ব নিয়ে।

পাহাড় ধসে যাবে, নগর পাবে শহরের প্রলেপ

সড়ক হবে আরও,

মাথা উঁচু করে দাঁড়াবে বেনামি গাছ…

এসবের আয়ুষ্কাল বড়জোড় সকাল থেকে সন্ধ্যা;

তোমাকে মানুষ খুঁজে পাবে প্রাণের বাঁশিতে চিরকাল।

ফিরে ফিরে তুমি বেঁচে উঠবে জীবিতদের জীবন দলে।

-এই নাও প্রণতি, যুদ্ধ জননী।

সাময়িকী'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj