ডেঙ্গু জ্বর

শুক্রবার, ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

* এবারের ডেঙ্গু জ¦রে তাপমাত্রা ১০১ ডিগ্রি, র‌্যাশ দেখা যায় না, রক্তক্ষরণও হয় না। হাড়ে বা শরীরের সংযোগস্থলে ব্যথাও হয় না। ফলে অনেকে বুঝতেই পারেন না যে তিনি ডেঙ্গু আক্রান্ত। তাই গুরুত্ব দেন না।

* জ্বর চলে যাওয়ার পরে প্লাটিলেট ভেঙে ব্লুাডপ্রেসার কমে কলাপস করে। শরীরে যে পরিমাণ পানি থাকা দরকার তা ষবধশ হয়ে যায়, যে কারণে ঢ়ৎবংংঁৎব কমে গিয়ে ংযড়পশ এ চলে যায়। জ¦রের সঙ্গে বমি ও লুজ মোশনও ডেঙ্গুর লক্ষণ। ফলে এবার মৃত্যুর হার বেশি।

* তাই জ্বর এলেই উবহমঁব ঘং১ পরীক্ষাটা দ্রুত করে ফেলুন। জ্বরের পাঁচদিনের মধ্যেই এই টেস্ট করতে হয়, পাঁচদিন কেটে গেলে এই টেস্ট নেগেটিভ আসে। তখন ডেঙ্গু কনফার্ম করার জন্য অন্য টেস্ট করতে হয়।

* প্রচুর লিকুইড খাবেন, খাওয়াবেন। যেমন ডাবের পানি, বাসায় বানানো ফলের রস, লেবুর শরবত ইত্যাদি।

* ইউরিন আউটপুট মনিটর করবেন।

* বিপি মনিটর করবেন।

* কোনো অবস্থাতেই ক্লোফেনাক (াড়ষঃধষরহ) / এসপিরিন/ আইবুপ্রোফেন / স্টেরয়েড জাতীয় ব্যথানাশক বা জ্বরনাশক ওষুধ দেয়া যাবে না।

* বাচ্চারা ঘুমালে দিনের বেলাতেও মশারিতে রাখবেন।

* আর নিজের বাসার কোথাও পরিষ্কার পানি জমে থাকছে কিনা খেয়াল রাখুন। ছাদে কোথাও পানি জমে থাকছে কিনা খেয়াল করুন। প্রতিবেশীদেরও সতর্ক করুন।

পরামর্শ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj