নতুন মডেলের গাড়ি চুরি করা যায় ১০ সেকেন্ডে

রবিবার, ১ সেপ্টেম্বর ২০১৯

পরীক্ষায় জানা গেছে, নতুন মডেলের গাড়ি মাত্র ১০ সেকেন্ডে চুরি করা যায়। নতুন এবং সর্বাধিক জনপ্রিয় কয়েকটি গাড়ি যে কোনো মুহূর্তে চুরি হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে। এর কারণ কী-লেস এন্ট্রি সিস্টেম বা চাবিবিহীন প্রবেশ প্রযুক্তির দুর্বলতা। এই পদ্ধতির কারণে চালকরা তাদের পকেট থেকে চাবি বের না করেই গাড়িগুলো খুলতে এবং চালু করতে পারে।

একটি ডিএস থ্রি ক্রসব্যাক এবং অডি টিটি আরএস এর মতো গাড়ি চুরি গেছে মাত্র ১০ সেকেন্ডের মাথায় এবং মাত্র ৩০ সেকেন্ডে চুরি গেছে ল্যান্ড রোভার ডিসকভারি স্পোর্ট টিডি ফোর ওয়ান এইটি এইচএসই মডেলের গাড়িটি। গাড়ি চুরির ক্ষেত্রে চোরেরা যে ধরনের পদ্ধতি ব্যবহার করে, হোয়াট কারের সুরক্ষা বিশেষজ্ঞরা সেসব প্রযুক্তি ব্যবহার করে পরীক্ষাগুলো করেন। তারা গাড়িতে উঠতে এবং গাড়ি চালিয়ে নিয়ে যেতে যে সময় খরচ হয়েছে তা পরিমাপ করেন। ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে গাড়ি চুরির হার আট বছরে সবচেয়ে বেশি বেড়েছে।

গত বছর এক লাখ ৬০ হাজার গাড়ির চুরির খবর পাওয়া যায় এবং চলতি বছরের শুরুতে ব্রিটেনে গাড়ি চুরির জন্য যে পরিমাণ বীমা দাবি করা হয়েছে সেটা গত সাত বছরের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। হঠাৎ গাড়ি চুরি বেড়ে যাওয়ার পেছনে নতুন গাড়িগুলোর চাবিবিহীন প্রযুক্তিকে আংশিকভাবে দায়ী করেছে বীমা সংস্থাগুলো। তবে চুরি যাওয়া গাড়ির মধ্যে কত শতাংশ চাবিবিহীন প্রযুক্তির, তার কোন সঠিক হিসাব নেই। অডির মূল সংস্থা, ভক্সওয়াগান গ্রুপ বলেছে যে তারা তাদের গাড়ির সুরক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে নিয়মিত কাজের অংশ হিসাবে পুলিশ এবং বীমাকারীদের সঙ্গে সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজ করছে।

ফ্যাশন (ট্যাবলয়েড)'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj