বঙ্গবন্ধু, হে পিতা মোদের

শুক্রবার, ১৬ আগস্ট ২০১৯

সুমনা গুপ্তা

বঙ্গবন্ধু, হে পিতা মোদের,

ধানমন্ডি বত্রিশ পেরিয়ে তোমার লাল টকটকে রক্ত

যে কখন এ দেশের পতাকার রংয়ে মিশেছে

ওরা তা জানে না।

ওরা তোমাকে হত্যা করতে এসেছিল,

এক ব্যভিচারী উল্লাসে মেতে উঠেছিল শকুনরা।

ওরা তো জানে না- তুমি মিশে আছ এক লক্ষ সাতান্ন হাজার বর্গকিলোমিটারে,

বাংলাদেশের ওই লাল মানচিত্রে,

এই দেশের প্রতিটি মাঠে, ঘাটে, দিগন্তজোড়া পথে, এই সোনার বাংলায়।

বঙ্গবন্ধু, হে পিতা মোদের,

তুমি মিশে আছ সবুজ শ্যামলিমায়,

টকটকে ওই লাল সূর্যের আলোর ¯্রােতের মিছিলে,

ঘাসে ঘাসে, পাখির কলকাকলীতে,

নদীর বয়ে চলা ¯্রােতে,

ফুলের শোভায়,

বটের ছায়ার মতনই তুমি আছ, তুমি রবে চিরকাল।

বঙ্গবন্ধু, হে পিতা মোদের,

তুমি মিশে আছ কৃষকের হাসিতে,

মজুরের ঘর্মাক্ত শরীরে,

কৃষাণীর ছোট্ট কুটিরে,

সন্তানের চোখের মায়ায়,

যুবকের দৃপ্ত প্রতিবাদে,

নববধূর লাজুক চাহনিতে,

বৃদ্ধের প্রজ্ঞায়, মায়ের আঁচলের ছায়ায়।

বঙ্গবন্ধু, হে পিতা মোদের,

তুমি রয়েছ চেতনায়, স্বাধিকারে, স্বাধীনতায়।

তুমি আছ প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে,

আছ মুক্তিযোদ্ধার হাতিয়ার, মুক্তিকামীর দৃঢ় প্রতিজ্ঞায়।

বঙ্গবন্ধু, হে পিতা মোদের,

তুমি মানে অন্যায়ের বিরুদ্ধে মাথা নত না করা,

তুমি মানে একাত্তর, রেসকোর্স, সাত মার্চের সেই গর্জে ওঠা কণ্ঠস্বর,

‘এবারের সংগ্রাম, মুক্তির সংগ্রাম’

তুমি মানে-বাংলাদেশ।

সাময়িকী'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj