শিরোপা জিতলেন বিয়ানকা

বৃহস্পতিবার, ১৫ আগস্ট ২০১৯

খেলা ডেস্ক : মেয়েদের এককে প্রথমবারের মতো রজার কাপখ্যাত কানাডিয়ান ওপেনের শিরোপা জিতলেন কানাডিয়ান টেনিস সুন্দরী বিয়ানকা আন্দ্রেসকু। ফাইনাল ম্যাচে আমেরিকান টেনিসার সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে ঘরের শিরোপা ঘরেই রেখে দিলেন এই সুন্দরী টেনিসার। ১৯৬৯ সালের পর প্রথম কানাডিয়ান হিসেবে মেয়েদের এককের ফাইনালে উঠেছিলেন আন্দ্রেসকু আর ফাইনালে উঠেই শিরোপা জিতলেন তিনি। তবে ম্যাচটিতে প্রথম সেটে সেরেনা যখন ৩-১ এ পিছিয়ে ছিলেন তখন ইনজুরির কারণে খেলা থেকে বিরতি নেন। কিন্তু পরবর্তী সময় ম্যাচে আর ফিরতে পারেননি তিনি। ফলে আন্দ্রেসকুকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। এবারই প্রথমবারের মতো এ দুজন একে অপরের বিপক্ষে খেলতে নেমেছিলেন।

টেনিসে দারুণ একটি সপ্তাহ কাটানো সেরেনা ফাইনালে এসেছিলেন জাপানের সেরা টেনিসার নাওমি ওসাকার মতো তরুণ টেনিসারকে হারিয়ে। কিন্তু ফাইনালে এসে ইনজুরিতে পরে আরেকটি শিরোপার পাওয়ার স্বপ্ন ভঙ্গ হয় তার। এর ফলে মাঠের মধ্যেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। তবে আন্দ্রেসকুকে শিরোপা জেতার কৃতিত্ব দিতে ভুলেননি তিনি। সেরেনা তার বক্তব্যে বলেন, আন্দ্রেসকু তুমি সত্যিকারের একজন স্পোর্টসওমেন। এ জয় তোমার প্রাপ্য ছিল। তিনি আরো বলেন, এ বছরটি কঠিন ছিল কিন্তু সবকিছু কাটিয়ে আবার আমি নতুনভাবে টেনিস কোর্টে ফিরে আসব। জানা গেছে, ৩৭টি গ্রান্ড¯øাম শিরোপাজয়ী সেরেনা হয়তো আর একবছর প্রফেসনাল টেনিস খেলা চালিয়ে যাবেন। এরপর বিদায় জানাবেন প্রিয় টেনিস কোর্টকে।

এদিকে ছেলেদের এককের শিরোপা জিতেছেন বিশে^র নম্বর টু টেনিসার রাফায়েল নাদাল। পর পর দুবার ও মোট পাঁচবার কানাডিয়ান ওপেনের শিরোপা জিতে অনন্য এক রেকর্ড গড়েছিলেন তিনি। মাত্র ১ ঘণ্টা ১০ মিনিট স্থায়ী হওয়া ম্যাচটিতে রাশিয়ার দানিল মেডভেদেভকে সরাসরি ৬-৩, ৬-০ সেটে হারিয়ে দেন তিনি। এই জয়ের মধ্য দিয়ে নাদাল প্রমাণ করলেন এখনো ফুরিয়ে যাননি। তরুণ দানিল মেডভেদেভক কোনো পাত্তাই পাননি নাদালের কাছে। প্রথম সেটে ৬-৩ এ শেষ করলেও দ্বিতীয় সেটে কোনো স্কোরই করতে পারেননি তিনি। ফলে রানার্সআপের শিরোপা নিয়েই তাকে বাড়ি ফিরতে হয়।

খেলা-ধূলা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj