রাজধানীতে বাস সংকট, ভাড়ায় নৈরাজ্য

রবিবার, ১১ আগস্ট ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : ঈদুল আজহা উপলক্ষে যাত্রীর চাপ বেশি থাকায় রাজধানীর বিভিন্ন রুটের বাস চুক্তিভিত্তিক ভাড়ায় ঢাকার বাইরে যাচ্ছে। এতে রাজধানীতে যাত্রীবাহী বাসের সংকট দেখা দিয়েছে। আর বাস সংকটের অজুহাতে নৈরাজ্য চলছে ভাড়া নিয়ে। যাত্রীদের অভিযোগ, বাস সংকটের ধোঁয়া তুলে বাড়তি ভাড়া দাবি করছেন বাসের কন্ডাক্টররা। এ নিয়ে যাত্রীদের সঙ্গে বাসের লোকজনের বাকবিতণ্ডার ঘটনাও ঘটছে।

মুগদা এলাকার বাসিন্দা মরিয়ম বেগম লাব্বাইক পরিবহনের বাসে নিয়মিত যাতায়াত করেন। তিনি জানান, বাসাবো বৌদ্ধ মন্দির থেকে মৌচাক পর্যন্ত ভাড়া ১০ টাকা। কিন্তু বাসের সংকট ও ঈদ বকশিশের কথা বলে ২০ টাকা ভাড়া চাচ্ছেন বাসের কন্ডাক্টররা। অন্যদিকে একই পরিবহনের বাসে সাভার থেকে ঢাকার বাংলামোটর পর্যন্ত ৪০ টাকা নিয়মিত যাওয়া আসা করেন জামান আকতার। কিন্তু বাস সংকটের কথা বলে তার থেকে ৬০ টাকা ভাড়া নেয়া হয়।

একই অভিযোগ করেছেন রাজাবাবু নামের আরেক যাত্রী। অন্যদিকে আরেক যাত্রী কাওছার আজম বলেন, স্বাধীন পরিবহনের বাসে আমি নিয়মিত ফার্মগেট থেকে মৌচাকে ১০ টাকায় আসি। কিন্তু ঈদ বকশিশের কথা বলে ৫ টাকা বেশি অর্থাৎ, ১৫ টাকা ভাড়া নেয়া হচ্ছে। না দিতে চাইলে বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটছে। শুধু মরিয়ম, জামান, আজমই নয় আরো একাধিক যাত্রী এমন অভিযোগ করেছেন।

তবে বাসভাড়া নিয়ে এমন নৈরাজ্য চললেও যেন দেখার কেউ নেই।

এদিকে, ভাড়া নৈরাজ্য ও যাত্রী হয়রানি বন্ধের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি। একই সঙ্গে ফিটনেসবিহীন যানবাহন ও অদক্ষ চালক অপসারণ করে নিরাপদ, নির্বিঘ্ন ও দুর্ঘটনামুক্ত ঈদযাত্রা নিশ্চিত করার দাবিও জানিয়েছে সংগঠনটি। গতকাল শনিবার সেগুনবাগিচাস্থ ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে সমিতির নেতারা এ দাবি জানান।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj