৮ দিন বন্ধ হিলি বন্দরের কার্যক্রম

রবিবার, ১১ আগস্ট ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরের বাণিজ্য কার্যক্রম গতকাল শনিবার থেকে টানা ৮ দিন ধরে বন্ধ থাকবে। পবিত্র ঈদুল আজহা, জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপ, সিএন্ডএফ এজেন্টস এসোসিয়েশনসহ বন্দর সংশ্লিষ্ট সংগঠনগুলো এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ফলে গতকাল সকাল থেকে বন্দরে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পণ্য আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। তবে হিলি চেকপোস্টের মাধ্যমে দুই দেশের মধ্যে পাসপোর্ট যাত্রী চলাচল স্বাভাবিক আছে।

বাংলাহিলি কাস্টমস সিএন্ডএফ এজেন্টস এসোসিয়েশনের সভাপতি কামাল হোসেন রাজ জানান, পবিত্র ঈদুল আজহা আগামী ১২ আগস্ট। ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস। এর পরের দিন সাপ্তাহিক ছুটি রয়েছে। এ কারণে শনিবার থেকে ১৭ আগস্ট পর্যন্ত ৮ দিন বন্ধের এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বন্ধের বিষয়টি ইতোমধ্যে ভারতের হিলি এক্সপোর্টার এন্ড কাস্টমস ক্লিয়ারিং এজেন্টস এসোসিয়েশন কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে। আগামী ১৮ আগস্ট সকাল থেকে যথারীতি শুরু হবে বন্দরের সব কার্যক্রম।

হিলি স্থল শুল্ক স্টেশনের রাজস্ব কর্মকর্তা নুর আমীন বলেন, ব্যবসায়ীরা এই কয়দিন বন্ধের সিদ্ধান্ত নিলেও শুধুমাত্র ঈদ, জাতীয় শোক দিবস ও সাপ্তাহিক ছুটিতে কাস্টমস কার্যালয় বন্ধ থাকবে। এরপর থেকে অফিসিয়াল কাজকর্ম চলবে। এর বাইরে আমাদের অতিরিক্ত ছুটি গ্রহণের কোনো সুযোগ নেই। এদিকে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. রফিকুজ্জামান জানান, হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট সব ধরনের সরকারি ও বেসরকারি ছুটির আওতামুক্ত থাকে।

তাই ঈদ বা কোনো দিবসের দিনেও বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পাসপোর্ট যাত্রী পারাপার স্বাভাবিক থাকে।

অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj