মঞ্চে আসছে ‘আইনস্টাইন’

রবিবার, ১১ আগস্ট ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : আইনস্টাইন (১৮৯৭-১৯৫৫) এক বিশ^ চরিত্রের নাম। পদার্থ বিজ্ঞান ও মহাকাশ বিজ্ঞান সম্পর্কিত নিউটনিও (আইজ্যাক নিউটন) ধারণার আমূল পরিবর্তন করে আধুনিক চিন্তার বিকাশ ঘটান তিনি। তার চিন্তার সূত্র ধরেই এগিয়েছে আধুনিক বিজ্ঞান। এখনো পৃথিবীর তাবত বিজ্ঞানীদের কাছে তিনিই পথপ্রদর্শক। শুধু কি তাই! একজন উচ্চ বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন মানুষ ছিলেন তিনি। তার রসবোধ ছিল অত্যন্ত উঁচু মাপের। প্রকৃতির জটিল সব রহস্য নিয়ে তিনি ভাবতেন। ব্যক্তিগত জীবনে ছিলেন কখনো সরল সহজ, কখনো তীক্ষè ব্যাঙ্গাত্মক, কখনো ভীষণ রসিক এবং প্রায় সবসময়ই প্রচণ্ড ভুলোমনা! আলোক তড়িৎ ক্রিয়া, আপেক্ষিক তত্ত্বের ¯্রষ্টাও তিনি। দ্বিতীয় বিশ^যুদ্ধে তার আবিষ্কৃত সূত্রের ব্যবহারিক প্রয়োগ ঘটে পারমাণবিক বোমা বিস্ফোরণের মাধ্যমে। এতে কি তার সায় ছিল? বরং মৃত্যু পূর্ব পর্যন্ত আত্মপীড়নে কাটিয়েছেন তিনি।

হিটলার তাকে কমিউনিস্ট আখ্যা দিয়ে দেশ ছাড়া করেছিল। আইনস্টাইনের সঙ্গে সাক্ষাৎ

হয়েছিল মহাত্মা গান্ধী, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, চার্লি চ্যাপলিন, ফ্রয়েড, বার্ট্রান্ড রাসেল, রুজভেল্টসহ আরও অনেকের। জানা গেছে- একটি বিবাদহীন, যুদ্ধহীন, অখণ্ডিত বিশ^ই ছিল তার কাম্য। মৃত্যুর প্রায় ৪৪ বছর পর টাইম ম্যাগাজিন ‘শতাব্দীর সেরা ব্যক্তি’ উপাধিতে ভূষিত করেছে এই মহান বিজ্ঞানীকে।

নাটকের মঞ্চে সেই আইনস্টাইনকে নিয়ে হাজির হচ্ছে দেশের অন্যতম নাটকের দল অকাল প্রয়াত এস এম সোলায়মানের গড়া- থিয়েটার আর্ট ইউনিট।

সম্প্রতি দলীয় সিদ্ধান্তে তাদের ৩৫তম প্রযোজনা হিসেবে ‘আইনস্টাইন’ পাণ্ডুলিপিটি নির্বাচন করা হয়। এটি রচনা করেছেন মোকাদ্দেম মোরশেদ। শিগগিরই প্রযোজনার কাজটি শুরু হবে বলে জানিয়েছেন দল প্রধান রোকেয়া রফিক বেবী।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj