শান্তনু বিশ^াসের প্রতি শ্রদ্ধা : শেষ বিদায়ে অঝোর ধারায় কেঁদেছিল বর্ষার প্রকৃতি

রবিবার, ১৪ জুলাই ২০১৯

চট্টগ্রাম অফিস : প্রকৃতিও অঝোর ধারায় যেন কাঁদছিল নাট্যকার-শিল্পী শান্তনু বিশ^াসের অকালে চলে যাওয়াতে। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে যখন বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী শান্তনু বিশ্বাসকে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে নেয়া হচ্ছিল তখন প্রকৃতি অঝোর ধারায় পানি ঢালছিল। প্রবল বৃষ্টির মধ্যেই সর্বস্তরের নাগরিকরা চোখের জলে ফুলেল শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানান তার প্রতি।

এ যেন প্রকৃতি আর মানুষের মধ্যকার মেলবন্ধন। গত শুক্রবার ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থাতেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন শান্তনু বিশ্বাস। ওই দিন রাতেই চট্টগ্রামে নিয়ে আসা হয় তাকে। গতকাল সকালে শহীদ মিনার চত্বরে এবং বিকেলে চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে নিয়ে যাওয়া হয় তার মরদেহ।

যে শান্তনু বিশ^াস নাটকের মঞ্চ ও গানের মঞ্চ থেকে দর্শক-শ্রোতার মনকে কাঁপিয়েছেন শিল্পগুণে, যে শান্তনু আড্ডায় মাতিয়েছেন সবাইকে সেই শান্তনু এভাবে নিথর-নিস্তব্ধ শুয়ে আছেন এমনটা কেউই যেন মানতে পারছিলেন না। অনেকেই ফুলেল শ্রদ্ধা জানাতে এসে চোখের জলে ভাসিয়েছেন নিজেকে এবং অন্যদেরও। শিল্পী দম্পতি শান্তনু-শুভ্রা’র ছোট মেয়ে পৃথা বিশ্বাস দেশে আসার পরই পরবর্তী করণীয় ঠিক করা হবে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

চট্টগ্রাম শহীদ মিনার চত্বরে শ্রদ্ধা-ভালোবাসা জানাতে হাজির হয়েছিলেন শিল্পী অধ্যাপক আবুল মনসুর, কবি প্রাবন্ধিক আবুল মোমেন, খেলাঘরের কেন্দ্রীয় সংগঠক প্রকৌশলী রথীন সেন, নাট্যজন আহমেদ ইকবাল হায়দার, উদীচী চট্টগ্রাম জেলা সংসদের সহ-সভাপতি ডা. চন্দন দাশ ও সাধারণ সম্পাদক শীলা দাশগুপ্তা, পেশাজীবী সংগঠনের নেতা প্রকৌশলী দেলোয়ার মজুমদার, কবি কামরুল হাসান বাদল, চট্টগ্রাম চলচ্চিত্র কেন্দ্রের পরিচালক শৈবাল চৌধুরী, কবি সাংবাদিক বিশ্বজিৎ চৌধুরী ও ওমর কায়সার, সংস্কৃতিকর্মী প্রবাল দে, খেলাঘর সংগঠক রোজী সেন, নাট্যকার অধ্যাপক অসীম দাশ, নাট্যকার অধ্যাপক কুন্তল বড়–য়া, আবৃত্তিশিল্পী রাশেদ হাসান, নাট্যজন অধ্যাপক-কবি সঞ্জীব বড়–য়া, সাংস্কৃতিক সংগঠক অনুপ সাহা, সুচরিত চৌধুরী খোকন, শিল্পী শুভ্রাসেন গুপ্ত, নাট্যজন দেবাশীষ রায়সহ প্রমুখ।

বিকেলে শিল্পকলা একাডেমিতে শ্রদ্ধা জানাতে হাজির হয়েছিলেন বিভিন্ন নাট্যসংগঠনের কর্মীরা। এদের মধ্যে রয়েছেন শহীদ জায়া মুশতারি শফি, নাট্যজন শিশির দত্ত, চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক ম. সাইফুল আলম, নাট্যসংগঠক দুলাল দাশগুপ্ত, অধ্যাপিকা রীতা দত্ত, কবি-শিক্ষিকা সেলিনা শেলী, নাট্যজন মিশফাক রাসেল, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান জহিরুল আলম দোভাষ, পেশাজীবী সংগঠনের নেতা প্রফেসর ডা. এ কিউ এম সিরাজুল ইসলাম। এছাড়া বিভিন্ন সংগঠনের মধ্যে তীর্যক নাট্যদল, খেলাঘর, মঞ্চমুকুট, আবৃত্তি সংগঠন প্রমা, বোধন, ওডিসি টেগোর এন্ড ড্যান্স মুভমেন্ট, অঙ্গন, কালপুরুষ, গনায়ন, উদীচীসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকেও ফুলেল শ্রদ্ধা জানানো হয়।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj